ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে ৩০ কিলোমিটার যানজট

ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে ৩০ কিলোমিটার যানজট

৮ মার্চ ২০১৭ (গ্লোবটুডেবিডি): ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে প্রায় ৩০ কিলোমিটার এলাকায় তীব্র যানজট সৃষ্টি হয়েছে। এতে চরম দুর্ভোগে পড়েছে যাত্রী সাধারণ।

মঙ্গলবার রাত থেকে ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে যানজট শুরু হয়। বুধবারও মহাসড়কের মির্জাপুর বাইপাস, দেওহাটা ও পাকুল্যা এলাকায় গিয়ে একই চিত্র দেখা গেছে। যানজটে স্থবির হয়ে পড়েছে পুরো মহাসড়ক।

ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স অফিসার ইনচার্জ মো. আতাউর রহমান জানান, মঙ্গলবার দিবাগত রাতে মহাসড়কের কালিয়াকৈর এলাকা থেকে যানজট শুরু হয়। ধীরে ধীরে যানজট তীব্র আকার ধারণ করে।

আবার বুধবার ভোর রাতে মহাসড়কের মির্জাপুর উপজেলার গোড়াই এলাকায় ও ইচাইল বাইপাস এলাকায় পর পর কয়েকটি মালবাহী ট্রাক বিকল হয়ে মহাসড়কের দুই পাশে যানজট শুরু হয়। থানা পুলিশ ও হাইওয়ে পুলিশ খবর পেয়ে বিকল হওয়া ট্রাকগুলো সরানোর চেষ্টা করে।

পরে আবার মহাড়কের কালিয়াকৈর অভার ব্রিজের উপর ট্রাক ও বাস বিকল হয়ে পড়ায় যানজট আরও তীব্র থেকে তীব্র হতে থাকে।

ফলে গাজীপুরের চন্দ্রা থেকে টাঙ্গাইলের বাইপাস পর্যন্ত প্রায় ৩০ কিলোমিটার এলাকায় তীব্র যানজট সৃষ্টি হয়। এতে আটকে থাকা যাত্রীদের চরম দুর্ভোগের শিকার হতে হচ্ছে।

এ ব্যাপারে গোড়াই হাইওয়ে থানার ওসি মো. খলিলুর রহমান পাটোয়ারী ও মির্জাপুর থানার ওসি মোহাম্মদ মাইন উদ্দিন বলেন, যানজট নিরসনের জন্য ট্রাফিক পুলিশ, থানা  পুলিশ ও হাইওয়ে পুলিশ নিরলসভাবে কাজ করেছে।

উত্তরাঞ্চলের ২২টি জেলার যানবাহন এবং টাঙ্গাইল, জামালপুর ও শেরপুর জেলার যানবাহন ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়ক দিয়ে চলাচল করে । যানজটে স্থবির হয়ে পড়েছে ওই মহাসড়ক।

এ মহাসড়কের যানজটের অন্যতম কারণ হচ্ছে, ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে চার লেনের কাজ। মীর আক্তার হোসেন জেবি ও আব্দুল মোনায়েম কোম্পানি চার লেনের কাজ শুরু করেন ২০১৫ সালে। এতে মহাসড়কের দুই পাশে ড্রাম ট্রাক দিয়ে মাটি ফেলার কারণেই যানজটের সৃষ্টি হচ্ছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

Share Button
Previous সড়ক দুর্ঘটনায় সংগীতশিল্পী কালিকাপ্রসাদ মারা গেছেন
Next খালেদার অাবেদনে আদালত পরিবর্তন

You might also like

০ Comments

No Comments Yet!

You can be first to comment this post!

Leave a Reply