ওয়ালটন ল্যাপটপের পারফরমেন্সে সন্তুষ্ট ক্রেতারা

ওয়ালটন ল্যাপটপের পারফরমেন্সে সন্তুষ্ট ক্রেতারা

ঢাকা ২৭ মার্চ ২০১৭ (গ্লোবটুডেবিডি):  বাজারে আসার কয়েক মাসের মধ্যেই ব্যাপক সাড়া ফেলেছে ওয়ালটন ল্যাপটপ। উচ্চ গুণগতমান, সর্বাধুনিক ফিচার, আকর্ষণীয় ডিজাইন ও সাশ্রয়ী দাম ইত্যাদি কারণে প্রযুক্তিপ্রেমীদের কাছে বাড়ছে ওয়ালটন ল্যাপটপের কদর।

অন্যান্য ব্র্যান্ডের একই কনফিগারেশনের ল্যাপটপের চেয়ে দামে সাশ্রয়ী হওয়ায় এবং কিস্তিতে কেনার সুযোগ থাকায় ওয়ালটন ল্যাপটপ বেছে নিচ্ছেন ক্রেতারা।

ওয়ালটন সূত্রে জানা যায়, বর্তমান সময়ে প্রযুক্তিপণ্যের গুরুত্ব বিবেচনায় মানের প্রশ্নে কোনো আপোস করেনি দেশীয় এই ব্র্যান্ড। ওয়ালটনের ল্যাপটপে ব্যবহৃত হয়েছে সর্বাধুনিক প্রযুক্তি। সর্বোচ্চ মান নিশ্চিত করতে ওয়ালটন, ইন্টেল, মাইক্রোসফট এবং বাংলাদেশের বিজয় বাংলার যৌথ উদ্যোগে তৈরি হচ্ছে ল্যাপটপ। ফলে অত্যাধুনিক সুবিধার মানসম্মত ল্যাপটপ পাচ্ছেন ক্রেতারা।

কম্পিউটার বাজার ঘুরে জানা গেছে, স্মার্ট ডিজাইন, আকর্ষণীয় কালার ও অত্যাধুনিক ফিচার সম্বলিত প্যাশন, টামারিন্ড, কেরোন্ডা ও ওয়াক্সজ্যাম্বু এই চারটি সিরিজের মোট ২২টি মডেলের ওয়ালটন ল্যাপটপ পাওয়া যাচ্ছে। শিক্ষার্থীদের জন্য আছে ২২ হাজার ৯৯০ এবং ২৩ হাজার ৯৯০ টাকা মূল্যের দুটি বিশেষ ল্যাপটপ।

বাংলাদেশে একমাত্র ওয়ালটন ল্যাপটপেই প্রথমবারের মতো কি-বোর্ডে বাংলা ফন্ট ও বিল্ট-ইন বিজয় বাংলা সফটওয়্যার দেয়া হয়েছে। ব্যবসায়ী, চাকরিজীবী, গেমার, ওয়েব ডিজাইনার ও শিক্ষার্থীদের ব্যবহারের দিক বিবেচনা করেই ভিন্ন ভিন্ন মডেল ও দামের ল্যাপটপ বাজারে ছেড়েছে ওয়ালটন। ফলে খুব দ্রুত ল্যাপটপ ক্রেতাদের আস্থা অর্জন করেছে ওয়ালটন।

ক্রেতাদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, আকর্ষণীয় ডিজাইন, সাশ্রয়ী দাম ও উন্নতমান হওয়ায় প্রযুক্তিপ্রেমীরা বেছে নিচ্ছেন ওয়ালটন ল্যাপটপ। ভিন্ন ভিন্ন ব্যবহারকারীর চাহিদা ও প্রয়োজন অনুযায়ী অসংখ্য মডেল থাকায় একজন ক্রেতা খুব সহজেই নিজের জন্য সঠিক ল্যাপটপটি কিনতে পারছেন। ১২ মাসের কিস্তি সুবিধায় ল্যাপটপ ক্রয় করা যাচ্ছে বলে ক্রেতাদের পছন্দের শীর্ষে ওয়ালটন ব্র্যান্ড।

গত মাসে রাজধানীর আগারগাঁওয়ের আইডিবি ভবনের ওয়ালটন প্লাজা থেকে প্যাশন সিরিজের WP146U3S মডেলের একটি ল্যাপটপ কিনেছেন বাংলাদেশ পুলিশের সাব ইন্সপেক্টর আব্দুল বারিক। তিনি জানান, তার কাজের জন্য প্রয়োজনীয় কনফিগারেশন ও বাজেটের মধ্যে হওয়ায় দেশীয় ব্র্যান্ডের এই ল্যাপটপ বেছে নিয়েছেন। ল্যাপটপটির মান, কাজের গতি, ব্যাটারি ব্যাক-আপ সবকিছু নিয়ে সন্তুষ্ট তিনি।

ওয়ালটন ল্যাপটপ কিনে একইভাবে সন্তুষ্টি প্রকাশ করেছেন একটি জাতীয় দৈনিক পত্রিকায় কর্মরত হাফিজুল ইসলাম। এ বছরের জানুয়ারি মাসে রাজধানীর যাত্রাবাড়ি এলাকার কাজলা ওয়ালটন প্লাজা থেকে টামারিন্ড সিরিজের WT146U5G মডেলের একটি ল্যাপটপ কেনেন ছোট বোনের জন্য। দেশীয় ব্র্যান্ড, মানসম্মত পণ্য, সাশ্রয়ী দাম ও কিস্তি সুবিধার কারণে তিনি ওয়ালটন ল্যাপটপ বেছে নিয়েছেন বলে জানান। ল্যাপটপের পারফরমেন্স ও ব্যাটারি ব্যাক-আপসহ অন্যান্য অত্যাধুনিক ফিচারে সন্তুষ্ট তার বোন। তিনি বলেন ওয়ালটন ব্র্যান্ডের পণ্য ক্রয়ে বড় সুবিধা সহজ শর্তে কিস্তিতে পণ্য কেনা যায়। একই ব্র্যান্ডের অন্যান্য পণ্যও ব্যবহার করছেন জানিয়ে তিনি ওয়ালটন পণ্যের মান নিয়ে সন্তোষ প্রকাশ করেন।

ইয়োন গ্রুপে কর্মরত ইঞ্জিনিয়ার মাসুম। সম্প্রতি আইডিবির ওয়ালটন প্লাজা থেকে প্যাশন সিরিজের WP156U5G মডেলের একটি ল্যাপটপ কেনেন। তিনি জানান, বাজারে আসার পর পরই গত বছর তার ছোটভাই ওয়ালটন ব্র্যান্ডের একটি ল্যাপটপ কিনেছিলেন। পারফরমেন্সে সন্তুষ্ট হয়ে তাকেও এই ব্র্যান্ডের ল্যাপটপ কেনার পরামর্শ দেন। মূলত ছোটভাইয়ের পরামর্শে তিনিও ওয়ালটন ব্র্যান্ডের ল্যাপটপ কেনেন। মাসুম বলেন, ওয়ালটনের ল্যাপটপ কেনায় একই কনফিগারেশনের অন্য ব্র্যান্ডের চেয়ে অন্তত ৭ হাজার টাকা কম লেগেছে, সেইসঙ্গে একটি ভালো পণ্য পেয়েছি।

দেশীয় ব্র্যান্ড, আকর্ষণীয় ডিজাইন, দারুণ পারফরমেন্স আর দামে সাশ্রয়ী- এই বিষয়গুলোর কারণেই তিনি ওয়ালটন ল্যাপটপ কিনতে উৎসাহিত হন বলে জানান মাসুম। ওয়ালটনের প্রশংসা করে তিনি জানান, দেশীয় এই ব্র্যান্ডের তৈরি এলইডি টেলিভিশনও তিনি ব্যবহার করছেন। মানসম্পন্ন প্রযুক্তি পণ্য উৎপাদনে ওয়ালটনের সুনাম বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে যাবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি।

একই প্লাজা থেকে গত সপ্তাহে প্যাশন সিরিজের WP14B71S মডেলের ল্যাপটপ কিনেছেন একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা সোহাগ। তিনি জানান, এর আগে অন্য ব্র্যান্ডের ল্যাপটপ ব্যবহার করলেও, সম্প্রতি তিনি ওয়ালটনের ব্র্যান্ডের ল্যাপটপ কেনেন। এর ডিজাইন, পারফরমেন্স ও ব্যাটারি ব্যাক-আপ ইত্যাদি বিষয়গুলো তাকে আকৃষ্ট করেছে। ওয়ালটনের ল্যাপটপ ব্যবহার করে সন্তোষ প্রকাশ করেন তিনি।

উল্লেখ্য, ক্রেতাদের হাতে উচ্চ গুণগতমানের ল্যাপটপসহ তথ্যপ্রযুক্তিনির্ভর বিভিন্ন ধরনের ডিভাইস তুলে দিতে সম্প্রতি রাজধানীর আগারগাঁওয়ের আইডিবি ভবনের বিসিএস কম্পিউটার সিটিতে চালু হয়েছে ওয়ালটন প্লাজা। এখানে উচ্চ গুণগত মানসম্পন্ন সাশ্রয়ী মূল্যের ল্যাপটপ ও ট্যাব পাওয়া যাচ্ছে। খুব শিগগিরই ডেস্কটপ মনিটর, মাউস, কি-বোর্ড, প্রিন্টারসহ অন্যান্য আইসিটি পণ্যও পাওয়া যাবে বলে জানায় ওয়ালটন কর্তৃপক্ষ। এছাড়া সারা দেশে ওয়ালটন প্লাজা ও ব্র্যান্ডেড আউটলেটে পাওয়া যাচ্ছে ওয়ালটন ল্যাপটপ।

সব মডেলের ওয়ালটন ল্যাপটপেই রয়েছে দুই বছরের ওয়ারেন্টি সুবিধা। সর্বোচ্চ মানের বিক্রয়োত্তর সেবা দিতে আইএসও সনদপ্রাপ্ত সার্ভিস ম্যানেজমেন্ট সিস্টেমের আওতায় দেশব্যাপী ছড়িয়ে আছে অসংখ্য ওয়ালটন সার্ভিস সেন্টার ও পয়েন্ট।

Share Button
Previous আঁটসাঁট পোশাক পরায় বিমানে উঠতে বাধা
Next এফবিসিসিআইয়ের নির্বাচন: আপিলের শুনানি বৃহস্পতিবার

You might also like

০ Comments

No Comments Yet!

You can be first to comment this post!

Leave a Reply