কাঠ-পাতা খেয়ে বেঁচে আছেন মোহম্মদ বাট

কাঠ-পাতা খেয়ে বেঁচে আছেন মোহম্মদ বাট

২৩ এপ্রিল ২০১৭ (গ্লোবটুডেবিডি): পাকিস্তানের বাসিন্দা মোহম্মদ বাট (৫০) গত ২৫ বছর ধরে বেঁচে আছেন শুধু পাতা আর কাঠ খেয়ে।

দেশটির গুজরানওয়ালার বাসিন্দা মহম্মদ বাটের জন্ম এক দরিদ্র পরিবারে। ২৫ বছর বয়সে এসে এতটাই অর্থাভাবে পড়েন যে, অনাহারে দিন কাটাতে শুরু করতে হয়। তাই বাধ্য হয়েই পেট ভরাতে গাছের পাতা ও কাঠ খেতে শুরু করেন।এরপর কেটে গেছে ২৫ বছর। উপার্জন বেড়েছে, সাধ্য হয়েছে খাবার কেনার। কিন্তু খাদ্যভ্যাস বদলাননি। আর তাই অন্য সবার চেয়ে একটু বেশি সুস্থ বাট।

গত ২৫ বছরে একবারের জন্যও চিকিৎসকের কাছে যেতে হয়নি তাকে। হাসপাতালেও তো নয়ই। কিন্তু কাঠ-পাতা খেয়ে একজন এভাবে সুস্থ আছেন কী করে- সেটাই বলতে পারছেন না কেউ। অবাক চিকিৎসকরাও।

প্রতিবেশীরা জানাচ্ছেন, একটি গাধার গাড়িতে করে মাল সরানোর কাজ করেন বাট। রোজ ৬০০ রূপি করে আয়। তবু খিদে পেলেই রাস্তার ধারে দাঁড়িয়ে গাছের পাতা ছিঁড়ে খাওয়াটা তার অভ্যাস। মাঝে মধ্যে গাছের ডাল ভেঙেও খান। এই খাদ্যভ্যাসের জন্যই স্থানীয় লোকেদের মধ্যে জনপ্রিয়তা কুড়িয়েছেন তিনি। উপার্জন বাড়লেও তাই পাতা-কাঠ খাওয়ার অভ্যাসটা ছাড়তে চাইছেন না বাট।

তিনি বলছেন, ‘অনাহারে থাকতে থাকতে একসময় বাধ্য হয়ে গাছের ডাল-পাতা খেতে শুরু করেছিলাম। কারণ, ভিক্ষে করার চেয়ে গাছের পাতা খেয়ে বেঁচে থাকা অনেক সম্মানের। যখন উপার্জন করতে শুরু করি, তখন ইচ্ছা করলেই স্বাভাবিক খাবারে ফিরে আসতে পারতাম। কিন্তু এতদিনের অভ্যাস আর ছাড়তে ইচ্ছা করেনি। এখন আর অন্য খাবার খেতে ভালো লাগে না।’

Please follow and like us:
Previous লাকী আখান্দের মৃত্যুতে খালেদা জিয়ার শোক
Next পাঠ্যবইয়ে ‘কাউয়া’ ঢুকে গেছে : খলীকুজ্জামান

You might also like

০ Comments

No Comments Yet!

You can be first to comment this post!

Leave a Reply