শিল্পী সমিতির নির্বাচন, এফডিসিতে বিশৃঙ্খলা

শিল্পী সমিতির নির্বাচন, এফডিসিতে বিশৃঙ্খলা

ঢাকা ৫ মে ২০১৭ (গ্লোবটুডেবিডি):  বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচনের ভোটগ্রহণ চলছে। আজ শুক্রবার সকাল ৯টায় শুরু হয় এ ভোট। শান্তিপূর্ণ ভোট চলাকালে দুপুরে হঠাৎ এফডিসির গেটে বিশৃঙ্খলা দেখা যায়। ঘটনার খোঁজ নিতে গিয়ে জানা যায়, চিত্রনায়ক অনন্ত জলিল ও চিত্রনায়িকা বর্ষা ভোট দিয়ে বের হয়ে যেতে চান। একই সময়ে খলনায়ক ডিপজল এফডিসিতে ভোট দিতে আসেন। এই কারণে গেটে অনেক গাড়ির জটলা লেগে যায়।

গেটে কর্তব্যরত পলিশ ও সিকিউরিটি গার্ড ডিপজলকে অনুরোধ করেন, ‘আগে অনন্ত-বর্ষার গাড়ি বের হয়ে যাক, তারপর আপনি ভেতরে চলে যান।’ কিন্তু ডিপজল এই কথা মানতে নারাজ। তিনি সবার কথা উপেক্ষা করে জোর করে এফডিসির ভেতরে প্রবেশ করতে চাওয়ায় বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি হয়। এ সময় উৎসুক জনতাকে হটিয়ে দিতে তৎপর হন পুলিশ। পুরো পরিস্থিতির জন্য নায়ক জায়েদ খানকে দায়ী করলেন কেউ কেউ।

পুলিশ ও সিকিউরিটি গার্ড মিলে প্রায় ৪০ মিনিটে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নিয়ে আসেন। এরপর অনন্ত-বর্ষা বের হয়ে যান। শাকিব খান ভোট দেওয়ার জন্য এফডিসিতে প্রবেশ করেন।

এ বিষয়ে ডিপজল বলেন, ‘এখানে অনেক অনিয়ম ও উল্টা-পাল্টা কাজ চলছে। পুলিশ টাকা খেয়ে অনিয়ম করছে।’

তিনি আরো বলেন, ‘এমন কি আমাদেরও ঢুকতে দিচ্ছে না। পরিচিত মুখ অমিত হাসান-ওমর সানীকেও পুলিশ ভেতরে ঢুকতে দিচ্ছে না। তাদের প্রশ্ন করা হচ্ছে, আপনাদের আইডি কার্ড কোথায়?’

এদিকে জায়েদ খান বলেন, ‘এগুলো সব মিথ্যে কথা। আর এ বিষয়ে আমি কিছু জানি না। এমন কি আমি নিজে গেটে গিয়ে দেখে এসেছি যে পুলিশ আমার লোকজনকেও ঢুকতে দিচ্ছে না।’

বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচনে চূড়ান্ত তালিকা অনুসারে ২১ পদের বিপরীতে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ৫৭ প্রার্থী। ভোট দেবেন মোট ৬২৪ জন। নির্বাচনে অংশ নিচ্ছে ৩টি প্যানেল।

সভাপতি পদের জন্য লড়ছেন ৩ প্যানেল থেকে মিশা সওদাগর, ওমর সানি ও ড্যানি সিডাক। ২টি সহ-সভাপতি পদে বিপরীতে লড়ছেন ৫ জন। এরা হলেন- নূতন, নাদির খান, রিয়াজ, সাংকোপাঞ্জা ও অমৃতা খান। সাধারণ সম্পাদক পদ একটি। এ একটি পদের জন্য লড়ছেন অমিত হাসান, ইলিয়াস কোবরা ও জায়েদ খান। ১টি সাংগঠনিক সম্পাদক পদের জন্য লড়ছেন ৩ জন। প্রার্থীরা হলেন- একা, রিনা খান ও সুব্রত। সহ-সাধারণ সম্পাদক হিসেবে ১টি পদের বিপরীতে ৩ জন লড়ছেন। আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক হিসেবে ১ টি পদের বিপরীতে আছেন  ৩ জন প্রার্থী। সংস্কৃতি ও ক্রীড়া সম্পাদক হিসেবে ১টি পদের বিপরীতে ৪ জন রয়েছেন। কোষাধ্যক্ষ হিসেবে ১টি পদের বিপরীতে ৩ জন প্রতিদ্বিন্দ্বিতা করছেন। কার্যকরি পরিষদ সদস্য হিসেবে ১১টি পদের বিপরীতে ২৮ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

নির্বাচন কমিশনের চেয়ারম্যান হিসেবে আছেন পরিচালক মমতাজুর রহমান আকবর। তিনি জানালেন, শান্তিপূর্ণ পরিবেশে নির্বাচন শুরু হয়েছে। দুপুর একটা থেকে দুইটা পর্যন্ত বিরতি দিয়ে ভোট গ্রহণ শেষ হবে বিকেল পাঁচটায়।

Share Button
Previous কাশ্মীরে ২০ গ্রাম ঘিরে সেনা অভিযান
Next বদলে যাবে দক্ষিণ এশিয়ার চিত্র: প্রধানমন্ত্রী

You might also like

০ Comments

No Comments Yet!

You can be first to comment this post!

Leave a Reply