বিয়ানীবাজারে ছাত্রলীগের দু’গ্রুপে সংঘর্ষে নিহত ১

বিয়ানীবাজারে ছাত্রলীগের দু’গ্রুপে সংঘর্ষে নিহত ১

১৮ জুলাই ২০১৭ (গ্লোবটুডেবিডি): সিলেটের বিয়ানীবাজার সরকারি কলেজে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে ছাত্রলীগের দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষে লিটন আহমদ লিটু (২৫) নামে একজন নিহত হয়েছেন। তার মরদেহ ইংরেজি বিভাগের একটি কক্ষ থেকে উদ্ধার করা হয়।

সোমবার দুপুরে কলেজ ছাত্রলীগের ‘পল্লব’ ও ‘পাভেল’ গ্রুপের মধ্যে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। নিহত লিটন আহমদ লিটু পাভেল গ্রুপের কর্মী এবং পৌর শহরের নয়াগ্রাম রোডে একটি মোবাইল ফোনের দোকানের মালিক।তিনি পৌরসভার পণ্ডিতপাড়া এলাকার ফয়জুর রহমানের ছেলে।

বিয়ানীবাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) চন্দন কুমার চক্রবর্তী বলেন, এই হত্যাকাণ্ডে জড়িতদের গ্রেফতারে পুলিশ কাজ শুরু করছে। মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্যে সিলেটে পাঠানো হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, কলেজের ওই কক্ষ থেকে গুলির শব্দ শুনে ক্যাম্পাসে থাকা পুলিশ সদস্যরা ঘটনাস্থলে গিয়ে যুবকের রক্তাক্ত দেহ দেখতে পান। যুবকের ডান চোখের ওপর গুলির চিহ্ন রয়েছে। এ সময় কক্ষে অন্য কাউকে খুঁজে পায়নি পুলিশ।

তারা আরও জানান, সকালে কলেজের প্রথমবর্ষের দুই ছাত্রের মধ্যে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে।এতে কলেজ ক্যাম্পাসে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। খবর পেয়ে পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

নিহত ওই যুবক কলেজের শিক্ষার্থী নয় বলে নিশ্চিত করে কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক দ্বারকেশ চন্দ্র নাথ বলেন, কী নিয়ে ঘটনা ঘটেছে বুঝতে পারিনি। সকাল ১১টার দিকে বিজ্ঞান বিভাগ ও ইংরেজি বিভাগের কক্ষগুলো পরিদর্শন করি। সে সময় ওই কক্ষ খালি ছিল। এরপর হঠাৎ করে গুলির শব্দ পাই। ক্যাম্পাসে থাকা পুলিশ সদস্যরা শব্দ শোনে ঘটনাস্থলে গিয়ে যুবকের রক্তাক্ত দেহ উদ্ধার করেন।

তিনি বলেন, এ ঘটনায় স্নাতক প্রথমবর্ষের আজকের পরীক্ষা স্থগিত করা হয়েছে। তাৎক্ষণিকভাবে কলেজ ছুটি দেওয়া হয়েছে।

Share Button
Previous মিথ্যা তথ্যে অঙ্গপ্রত্যঙ্গ সংযোজনে দুই বছরের জেল
Next আত্মসমর্পণ করে জামিন পেলেন আরাফাত সানী

You might also like

০ Comments

No Comments Yet!

You can be first to comment this post!

Leave a Reply