দ্বিতীয় মেয়াদে গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধি অবৈধ: হাইকোর্ট

দ্বিতীয় মেয়াদে গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধি অবৈধ: হাইকোর্ট

ঢাকা ৩১ জুলাই ২০১৭ (গ্লোবটুডেবিডি): দ্বিতীয় দফায় জুন থেকে আবাসিক গ্যাসের দাম বৃদ্ধিকে অবৈধ ঘোষণা করেছেন হাইকোর্ট। তবে জুন থেকে যে বিল নেয়া হয়েছে তা রায়ের আওতার বাইরে থাকবে।এ রায়ের ফলে এখন থেকে গ্রাহকের কাছ থেকে এক চুলার জন্য ৭৫০ টাকা ও দুই চুলার জন্য ৮০০ টাকা নেয়া হবে।
১ আগস্ট থেকে নির্ধারিত এ দাম বহাল রাখতে নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট।
আদালতের এই আদেশ পত্রিকার বিজ্ঞপ্তি আকারে জনগণকে জানাতে বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশনকে (বিইআরসি) নির্দেশ দেয়া হয়েছে।
রোববার বিচারপতি জিনাত আরা ও বিচারপতি কাজী মো. ইজারুল হক আকন্দের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এই আদেশ দেন।
আদালতে বাংলাদেশ অ্যানার্জি রেগুলেটরি কমিশনের (বিইআরসি) পক্ষে শুনানি করেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম। তিতাস গ্যাসের পক্ষে শুনানিতে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল মোতাহার হোসেন সাজু।
রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল ইশরাত জাহান। রিট আবেদনের পক্ষে ছিলেন অ্যাডভোকেট সুব্রত চৌধুরী ও মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম।
রায় ঘোষণার পর অ্যাডভোকেট সুব্রত চৌধুরী বলেনএ বিষয়ে জারি করা রুলের আংশিক মঞ্জুর করেছেন হাইকোর্ট।
রায়ে আদালত বলেছেনপহেলা জুলাই থেকে এক চুলা এবং দুই চুলার ক্ষেত্রে গ্যাসের দাম বাড়ানো অবৈধ। তবে  ৩১ জুলাই পর্যন্ত সরকারের নেয়া গ্যাসের বাড়তি দামের বিষয়টি মার্জনা করা হয়েছে। ফলে ১ আগস্ট থেকে আবাসিক কাজে গ্যাসের ব্যবহারের ওপর বাড়তি টাকা নেয়া যাবে না।
গত ২৩ ফেব্রুয়ারি বিইআরসি দুই ধাপে গ্যাসের দাম বাড়ানোর ঘোষণা দেয়।
তাদের গণবিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী প্রথম দফায় ১ মার্চ ও দ্বিতীয় দফায় ১ জুন থেকে দাম বাড়ার কথা।
বিইআরসির আদেশ অনুযায়ী মার্চ থেকে আবাসিক গ্রাহকদের এক চুলার জন্য ৭৫০ (আগে ৬০০) ও দুই চুলার জন্য ৮০০ টাকা (আগে ৬৫০) বিল দেওয়ার কথা বলা হয়। আর জুন থেকে এক চুলার জন্য ৯০০ ও দুই চুলার জন্য ৯৫০ টাকা বিল দেওয়ার কথা।
ওই গণবিজ্ঞপ্তির বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে ক্যাবের কনজুমার কমপ্লেইন হ্যান্ডলিং ন্যাশনাল কমিটির আহ্বায়ক স্থপতি মোবাশ্বের হোসেন রিট করেন।
গত ২৮ ফেব্রুয়ারি এক রিট আবেদনের শুনানি নিয়ে হাইকোর্ট রুলসহ দ্বিতীয় দফায় গ্যাসের দাম বাড়ানোর সিদ্ধান্ত ছয় মাসের জন্য স্থগিত করেন। এই আদেশ স্থগিত চেয়ে আবেদন করে বিইআরসি।
গত ৩০ মে সেই আবেদনের শুনানি নিয়ে চেম্বার বিচারপতি হাইকোর্টের দেওয়া আদেশে স্থগিতাদেশ দিয়ে ৫ জুন আপিল বিভাগের নিয়মিত বেঞ্চে পাঠান।
এর ধারাবাহিকতায় ওই দিন বিষয়টি শুনানির জন্য ওঠে। শুনানি নিয়ে চেম্বার বিচারপতির দেওয়া এই স্থগিতাদেশ বহাল রাখেন আপিল বিভাগ। এছাড়া গ্যাসের দাম বৃদ্ধি প্রশ্নে হাইকোর্টের দেওয়া রুল ৩১ জুলাইয়ের মধ্যে নিষ্পত্তি করতে বলা হয়।

Share Button
Previous বাড্ডায় পৌনে চার বছরের শিশুকে ধর্ষণের পর হত্যা
Next নির্বাচনে সেনা মোতায়েন ও না-ভোটের প্রস্তাব

You might also like

০ Comments

No Comments Yet!

You can be first to comment this post!

Leave a Reply