• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ৩০শে নভেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১৫ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
প্রকাশিত: ১৭ আগস্ট, ২০১৭
সর্বশেষ আপডেট : ১৭ আগস্ট, ২০১৭

পাসপোর্ট জমার সময় শেষ আজ : ভিসা হয়নি ৩৮৯১ হজযাত্রীর

অনলাইন ডেস্ক
[sharethis-inline-buttons]

১৭ আগস্ট ২০১৭ (গ্লোবটুডেবিডি): এবারো হজ কোটার শতভাগ যাত্রী হজে যেতে পারবেন না বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। আজ বৃহস্পতিবার সৌদি দূতাবাসে ভিসার জন্য হজযাত্রীদের পাসপোর্ট জমা দেয়ার শেষ দিন হলেও গতকাল পর্যন্ত ভিসা অনুমোদন হয়েছে এক লাখ ২৩ হাজার ৩০৭ জনের। ফলে শেষ দিনে তিন হাজার ৮৯১ জনকে ভিসার আবেদন করতে হবে। তবে এর মধ্যে প্রায় তিন হাজার ব্যক্তি চিকুনগুনিয়া, বন্যাসহ বিভিন্ন অসুস্থতাজনিত কারণে হজে যেতে পারবেন না বলে হজ অফিসকে জানিয়েছে।

চলতি বছর বাংলাদেশের মোট হজ কোটা এক লাখ ২৭ হাজার ১৯৮ জন। এর মধ্যে সরকারিভাবে হজযাত্রী যাবেন চার হাজার ২০০ জন। আর বেসরকারিভাবে যাবেন এক লাখ ২২ হাজার ৯৯৮ জন। ধর্ম মন্ত্রণালয়ের সচিব মো: আব্দুল জলিল গতকাল রাতে নয়া দিগন্তকে জানান, গতকাল পর্যন্ত সরকারি কোটার চার হাজার ২০০ জনের মধ্যে চার হাজার ১৫৬ জনের ভিসা অনুমোদন হয়েছে। অর্থাৎ বাকি আছে আর মাত্র ৪৪ জনের।

আর বেসরকারি এজেন্সির মাধ্যমে যাওয়া এক লাখ ২২ হাজার হজযাত্রীর মধ্যে ভিসা অনুমোদন হয়েছে এক লাখ ১৯ হাজার ১৫১ জনের। অর্থাৎ এখনো বাকি আছে তিন হাজার ৮৪৭ জনের। ফলে মোট ভিসা হওয়া বাকি আছে তিন হাজার ৮৯১ জনের।

সচিব আব্দুল জলিল বলেন, প্রতি বছরই কিছু হজযাত্রী যেতে পারেন না। গত বছর সর্বোচ্চ ৯৭ শতাংশ হজযাত্রী হজে যান। এ বছর এখনো প্রায় চার হাজার আবেদন বাকি আছে। ভিসার আবেদনের জন্য আর মাত্র এক দিন সময় আছে। তবে বেসরকারি এজেন্সিদের সংগঠন হাব ধর্ম মন্ত্রণালয়ে আবেদন করলে আমরা সৌদি দূতাবাসকে সময় বাড়ানোর আবেদন করব।

তবে ইতোমধ্যে হজ অফিসে প্রায় দুই শতাংশ হজযাত্রী চিকুনগুনিয়া, বন্যাসহ বিভিন্ন কারণে হজে যাবেন না বলে লিখিতভাবে জানিয়েছেন, যার সংখ্যা প্রায় তিন হাজার হবে।

এ দিকে হজ অফিসের বুলেটিন থেকে জানা যায়, গত মঙ্গলবার পর্যন্ত সৌদি আরবে মোট হজযাত্রী গেছেন ৬৭ হাজার ৪২ জন। গতকাল বুধবার আরো তিন হাজার হজযাত্রীর সৌদিতে পৌঁছার কথা। এতে এ পর্যন্ত হজযাত্রী গেলেন ৭০ হাজার। আগামী ২৬ আগস্ট বিমান ও ২৭ আগস্ট সৌদি এয়ারলাইনস ঢাকা থেকে শেষ প্রাক হজফাইট পরিচালনা করবে।

ফলে আগামী ১১ দিনে আরো ৫৭ হাজার হজযাত্রী পরিবহন করতে হবে দু’টি বিমান সংস্থাকে। এ জন্য ইতোমধ্যে বিমানের বিভিন্ন রুটের নিয়মিত ফাইট বাতিল করে হজযাত্রী পরিবহনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিমান।

Share Button
[sharethis-inline-buttons]

আরও পড়ুন