২৩ ও ২৪ আগস্ট ঢাকায় অনুষ্ঠিত হচ্ছে ‘বাংলাদেশ ফুড সেফটি কনফারেন্স’

২৩ ও ২৪ আগস্ট ঢাকায় অনুষ্ঠিত হচ্ছে ‘বাংলাদেশ ফুড সেফটি কনফারেন্স’

ঢাকা ১৯ আগস্ট ২০১৭ (গ্লোবটুডেবিডি):দেশে প্রথমবারের মতো অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে ‘বাংলাদেশ ফুড সেফটি কনফারেন্স’। আগামী ২৩ ও ২৪ আগস্ট, বুধ ও বৃহস্পতিবার রাজধানীর প্যান প্যাসিফিক সোনারগাঁও হোটেলে দুদিনব্যাপী এই সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে। আজ শনিবার সকালে রাজধানীর মতিঝিলে মেট্রোপলিটন চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি (এমসিসিআিই) ভবনে আয়োজিত এক সাংবাদিক সম্মেলনে এই তথ্য জানানো হয়। সাংবাদিক সম্মেলনে বক্তব্য দেন, বাংলাদেশ ফুড সেফটি অথরিটির চেয়ারম্যান মোহাম্মদ মাহফুজুল হক, বিএসটিআই-এর পরিচালক (মান) মো. আসাদুজ্জামান, এমসিসিআিই সভাপতি ফারুক আহমেদ, ফরেন ইনভেস্টরস চেমআর অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি (এফআইসিসিআই) সভপাতি রূপালী চৌধুরী ও সাংগঠনিক কমিটির সচিব, বিশিষ্ট সঙ্গীত শিল্পী নকীব খান প্রমুখ।

সাংবাদিক সম্মেলনে জানানো হয়, এফআইসিসিআই, এমসিসিআিই এবং বাংলাদেশ ফুড সেফটি অথরিটি, বিএসটিআই-এর যৌথ উদ্যোগে আয়োজিত দুদিনের এই েসম্মেলনে দেশী ও বিদেশী নিরাপদ খাদ্য বিশেষজ্ঞ, শিল্প-উদ্যোক্তা, খাদ্য উৎপাদনকারী, নিয়ন্ত্রক সংস্থা ও নাগরিক সমাজের প্রতিনিধিদের সমন্বয়ে কয়েক দফা প্যানেল আলোচনা অুনষ্ঠিত হবে। এ্সব আলোচনায় উঠে আসা মতামত ও সুপারিশগুলো বুকলেট আকারে প্রকাশ করা হবে। তারপর সেগুলো সরকারের সংশ্লিষ্ট সংস্থা ও সংশ্লিষ্ট খাদ্য উৎপাদক ও ব্যবসায়ী-উদ্যোক্তাদের মাধ্যমে বাস্তবায়ন করা হবে।

প্রথমদিন বুধবার সকাল দশটায় সম্মেলনের উদ্বোধন করবেন শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু এবং পরদিন বৃহস্পতিবার বেলা আড়াইটায় সম্মেলনের সমাপনী বক্তব্য দেবেন বাণিজ্যমন্ত্রী তোয়ায়েল আহমেদ।

সাংবাদিক সম্মেলনে বাংলাদেশ ফুড সেফটি অথরিটির চেয়ারম্যান মোহাম্মদ মাহফুজুল হক বলেন, নিরাপদ খাদ্য তথা খাদ্য নিরাপত্তা পাওয়াটা নাগরিকদের অধিকার। আর এই অধিকার নিশ্চিত করতে পারলে জাতি হিসেবে আমাদের সম্মান ও মর্যাদা সমুন্নত হবে। সংশ্লিষ্ট সকল ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের সুসমন্বয়ের মাধ্যমে আরা এটি বাস্তবায়ন করতে চাই। আর এক্ষেত্রে সাংবাদিকদের রয়েছে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা। তাঁদের দায়িত্বশীল সহযোগতার মাধ্যমে  অামরা এই খাদ্য নিরাপত্তার আন্দোলনকে একটি সামাজিক আন্দোলনে পরিণত করতে পারব।

বিএসটিআই-এর পরিচালক (মান) মো. আসাদুজ্জামান বলেন, এই ধরনের সম্মেলনের ফল আমাদের সবার জন্যই ইতিবাচক হবে। তবে িই উদ্যোগ কেবল একটি সম্মেলনের মধ্যেই সীমাবদ্ধ রাখলে চলবে না। বছর ব্যাপী কার্যকর নজরদারির মধ্য দিয়ে এর সুপারিশগুলো বাস্তবায়ন করতে হবে। অার এক্ষেত্রে নিয়ন্ত্রক সংস্থা গুলোর সাথে একযোগে কাজ করতে হবে ব্যবসায়ী ও উৎপাদকদেরকে। তাদের আন্তরিক সহযোগিতা পেলে আমরা অবশ্যই আমাদের অভীষ্ঠ লক্ষ্যে পৌঁছুতে পারব।

সাংবাদিক সম্মেলনে অন্যান্যের মধ্যে অন্যতম গোল্ডেন স্পন্সর গ্লোব ফার্মাসিউটিক্যালস গ্রুপ অব কোম্পানিজ-এর পরিচালক (সেলস অ্যান্ড মার্কেটিং) মো. খাইরুল আনাম উপস্থিত ছিলেন।

Share Button
Previous জিয়াউর রহমানের শাসনামল অবৈধ হলে আ'লীগও অবৈধ: ফখরুল
Next কুষ্টিয়ায় অপহরণের ৩দিন পর কলেজ ছাত্রের লাশ উদ্ধার

You might also like

০ Comments

No Comments Yet!

You can be first to comment this post!

Leave a Reply