শুধু পদ নয়, দেশও ছাড়তে হবে : এসকে সিনহাকে মানিক

শুধু পদ নয়, দেশও ছাড়তে হবে : এসকে সিনহাকে মানিক

ঢাকা ২৭ আগস্ট ২০১৭ (গ্লোবটুডেবিডি): প্রধান বিচারপতির উদ্দেশে সুপ্রিম কোর্টের সাবেক বিচারপতি এ এইচ এম শামসুদ্দিন চৌধুরী মানিক বলেছেন, ‘তুমি শুধু প্রধান বিচারপতির পদ ছাড়বা না, এই দেশ ছাড়তে হবে। তুমি যখন বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্ব স্বীকার করো না, তখন এ দেশে থাকার কোনো অধিকার তোমার নাই।’

তিনি আরো বলেন, ‘ষোড়শ সংশোধনী মামলার সঙ্গে সম্পৃক্ত না এমন অনেক কথা আপনি অবজারভেশনে বলেছেন। প্রধান বিচারপতির কাজ রাজনীতি করা না। যে প্রধান বিচারপতি রাজনীতি করে, সেটা তার অযোগ্যতা। এসব করে তিনি অনেকভাবে সংবিধান লঙ্ঘন করেছেন, শপথ ভঙ্গ করেছেন। তার আর এই পদে থাকার কোনো অধিকার নেই। তাকে অবশ্যই এই পদ ছেড়ে চলে যেতে হবে।’
শনিবার ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির মিলনায়তনে বাংলাদেশ স্বাধীনতা পরিষদ আয়োজিত এক আলোচনা সভায় তিনি এ কথা বলেন। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ এমপি।
ষোড়শ সংশোধনীর রায় লেখা নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করেছেন শামসুদ্দিন চৌধুরী মানিক। তিনি বলেন, উনি মাত্র ২৪ দিন সময়ের মধ্যে ৪০০ পৃষ্ঠার কথা লিখেছেন, এটা ইমপসিবল, এটা হতে পারে না। এটা তার লেখা রায় মোটেও নয়। মানিক বলেন, তার লেখা রায় পড়লে আপনারা দেখতে পাবেন, অনেক শব্দ আছে যেসব শব্দ তার লেখা আগের কোনো রায়ে নেই। অর্থাৎ এটা পরিষ্কার, এই রায় তার লেখা নয়। অন্য কেউ লিখে দিয়েছেন। সম্ভবত পাকিস্তানি কোনো আইএসআই লিখে দিয়েছে।
সভায় হাছান মাহমুদ বলেন, আওয়ামী লীগ সরকার অসাম্প্রদায়িক চেতনায় বিশ্বাসী- এমনটা প্রমাণ করতে অপোকৃত কম যোগ্যতা থাকা সত্ত্বেও প্রধান বিচারপতি পদে এস কে সিনহাকে নিয়োগ দেয়া হয়েছিল। আর এই প্রধান বিচারপতি এখন দুর্নীতিকে প্রশ্রয় দিচ্ছেন। দুর্নীতিবাজ এক বিচারককে বাঁচানোর জন্য তিনি দুদকে চিঠি দিয়েছেন। দুর্নীতিকে যে প্রশ্রয় দেয়, সেও সমান অপরাধী। এটা দুদকের পাঁচ নম্বর ধারা অনুযায়ী তিনিও সেই অপরাধ করেছেন। বিএনপির সমালোচনা করে তিনি বলেন, তেল-গ্যাস আন্দোলনের ঘাড়ে বসে বিএনপির রাজনীতি করার চেষ্টা ব্যর্থ হয়েছে। এখন বিএনপি প্রধান বিচারপতির ঘাড়ে বসে রাজনীতি করছে

Share Button
Previous কক্সবাজারে ৬৫ রোহিঙ্গা আটক
Next ঋণ খেলাপির পেছনে ব্যাংক ও ব্যাংকাররা দায়ী : অর্থমন্ত্রী

You might also like

০ Comments

No Comments Yet!

You can be first to comment this post!

Leave a Reply