মূর্ছা গেলে তাৎক্ষণিকভাবে করণীয় কাজ

মূর্ছা গেলে তাৎক্ষণিকভাবে করণীয় কাজ

১২ সেপ্টেম্বর ২০১৭ (গ্লোবটুডেবিডি): মূর্ছা যাওয়ার ঘটনা হরহামেশাই ঘটে। এই মূর্ছা যাওয়ার কারণও অনেক। সাধারণভাবে কারণ অনুযায়ীই চিকিৎসা করা উচিত। তার পরও তাৎক্ষণিকভাবে কী করা উচিত তা জানা থাকলে সমস্যা থেকে অনেকটাই রেহাই পাওয়া যায়।

কী মনে রাখবেন
মূর্ছা যাওয়া রোগীর পরনের পোশাক ঢিলা করে দিতে হবে।
হাত-পাত দাপাদাপি করলে ওই অবস্থা রাখতে হবে, দাপাদাপি থেমে গেলে রোগীর মাথাটা ঠিকমতো সোজা করে দিতে হবে।
যদি রোগীর কোনো ইনজুরি না হয় এবং নড়াচড়া করলে কোনো অসুবিধা না হয়, তাহলে তাকে সুন্দর করে শুইয়ে দিতে হবে।

কী করবেন
রোগীকে চিৎ করে সোজা অবস্থায় শুইয়ে দিন। তার শ্বাসনালি যাতে উন্মুক্ত থাকে সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে।
শ্বাসনালি উন্মুক্ত রাখতে রোগীর মাথাটা পেছন দিকে সুন্দর করে স্থাপন করতে হবে। যেকোনো টাইট পোশাক ঢিলা করে দিন।
যদি খিঁচুনি শুরু হয় তাহলে রোগীর চার পাশের শক্ত জিনিসগুলো সরিয়ে ফেলুন।
খিঁচুনি থেমে যাওয়ার পরও রোগী অজ্ঞান থাকলে তার মাথাটা পেছন দিকে কাত করে রাখুন। মুখের মধ্যে বমি থাকলে তা রুমাল দিয়ে পরিষ্কার করে দিন। কোনো ইনজুরি হয়েছে কিনা তা পরীক্ষা করে দেখুন।

যদি জ্বরে মূর্ছা যায়
সাধারণত ছোট শিশু বেশি জ্বরে মূর্ছা যায় এবং সেইসাথে তাদের খিঁচুনিও হতে পারে। সে ক্ষেত্রে যা করণীয়-
রোগীর পাশে অবস্থান করুন। মাথাটা পেছন দিকে কাত করে দিন, তাকে আরামদায়ক অবস্থানে শোয়ান।
বগলের নিচে থার্মোমিটার রেখে তাপমাত্রা পরীক্ষা করুন। আপনার লক্ষ্য হবে জ্বর কেবল এক ডিগ্রি কিংবা দুই ডিগ্র কমানো।
অতঃপর রোগীকে চিকিৎসকের কাছে নিয়ে যাবেন।

ডায়াবেটিস রোগীর ক্ষেত্রে
ডায়াবেটিস রোগী হলে যদি রোগীর হাইপোগ্লাইসেমিয়া থাকে তবে তাকে তৎক্ষণাৎ চিনি অথবা গ্লুকোজ শরবত খাইয়ে দিন। গ্লুকোমিটার হাতের কাছে থাকলে রক্তের গ্লুকোজের মাত্রা দেখুন।

বিশেষ সতর্কতা
মূর্ছা যাওয়া রোগীকে মুখে কিছু খাওয়াবেন না।
রোগীর দাঁতে দাঁত লেগে গেলে অথবা জিহ্বায় যাতে কামড় বসাতে না পারে সেজন্য সতর্ক দৃষ্টি রাখতে হবে। এ ক্ষেত্রে তার দাঁতের পাটির ফাঁকে চামচ বা এ জাতীয় শক্ত কিছু দেয়ার যাবে না; বরং নরম প্যাড দেবেন, তবে খেয়াল রাখতে হবে প্যাড যেন পিছলে পেছনে না যায় এবং গলায় আটকে না যায়।

রোগীর প্রাথমিক পরিচর্চা নেয়ার সময় হাসপাতালের সাথে যোগাযোগ করুন অথবা অ্যাম্বুলেন্স সার্ভিসের সাহায্য নিন।

Share Button
Previous মোবাইল ব্যবহারকারীদের জন্য ইউটিউবে নতুন সুবিধা
Next ঈদের ব্যস্ততা কাটিয়ে আবারও শুটিংয়ে বাপ্পাী-মাহি

You might also like

০ Comments

No Comments Yet!

You can be first to comment this post!

Leave a Reply