বাঁহাতি হওয়ার কারণ কী?

বাঁহাতি হওয়ার কারণ কী?

২ অক্টোবর ২০১৭ (গ্লোবটুডেবিডি): ডান বা বাঁহাতি হওয়ার অর্থটা কী। ঠিক কী কারণে কোনো একটি হাত অধিক সক্রিয় হয়ে ওঠে?

এ নিয়ে গবেষণা করেছে বিবিসি রেডিও-৪-এর ‘দ্য কিউরিয়াস কেসেস অব রাদারফোর্ড অ্যান্ড ফ্রাই’য়ের টিম। এ টিমের সদস্য হান্নাহ ফ্রাই বলছেন, শুধু হাতের ক্ষেত্রে নয়, মানুষের শরীরই আসলে ভারসাম্যহীন। এক হাত বেশি কর্মক্ষম হলে আরেক হাত কম সক্রিয় হয়। এটি চোখ বা কানের ক্ষেত্রেও ঘটে। আপনার কোন চোখ শক্তিশালী বা সক্রিয় তা সহজ একটি পরীক্ষার মাধ্যমেই শনাক্ত করা সম্ভব। হাত সোজা করে বুড়ো আঙুলটি তুলে ধরুন।

প্রথমে দু’চোখ দিয়ে দেখুন। পরে এক চোখ বন্ধ করে অন্যটি দিয়ে দেখুন। যেটি দিয়ে সবচেয়ে পরিষ্কার দেখা যাবে, সেটিই আপনার বেশি সক্রিয় চোখ। ফোনটি আপনি কোন কানে চেপে ধরছেন, দেয়ালে আড়ি পাততে কোন কান এগিয়ে দিচ্ছেন, খেয়াল করলেই বেরিয়ে আসবে কোন কানটি বেশি সক্রিয়।  হাতের মতো কোনো একটি পাও বেশি সক্রিয় হয়। সামগ্রিকভাবে আমাদের ৪০ শতাংশের বাঁ কান সক্রিয়, ৩০ শতাংশের বাঁ চোখ ও ২০ শতাংশের বাঁ পা বেশি সক্রিয়। আর মাত্র ১০ শতাংশ লোক বাঁহাতি।

কেন বাঁহাতিদের সংখ্যা এত কম? এর উত্তর এখনও অজানা। জিনতত্ত্ববিদরা বলছেন, এর পেছনে জিনগত বিষয় জড়িত। তবে কোনো ব্যাখ্যা এখনও খুঁজে পাননি তারা।  জিনবিজ্ঞানীরা উত্তর খুঁজে না পেলেও ডান-বাঁয়ের বিষয়টি নিয়ে মানুষ অনেক আগে থেকেই ভাবছে। ইংরেজিতে ‘লেফট’ শব্দটি এসেছে অ্যাংলো সেক্সনদের ‘লিফট’ থেকে, যার অর্থ দুর্বল। তার বিপরীতে যে ল্যাটিন শব্দ ‘ডেক্সার’ ব্যবহার করা হয় তার অর্থ দক্ষ, ন্যায়বান।

তবে বাঁহাতিদের দুর্বল বা অদক্ষ ভাবার কোনো কারণ নেই। এটা জানা বিষয় যে, মস্তিষ্কের ডান পাশ নিয়ন্ত্রণ করে শরীরের বাঁ পাশ। একইভাবে মস্তিষ্কের বাঁ পাশ নিয়ন্ত্রণ করে শরীরের ডান পাশ। বিজ্ঞানীদের ধারণা, বাঁহাতিদের ক্ষেত্রে এ বিন্যাসটি হয় বিশেষ ধরনের। এ কারণে অনেক সময় তাদের কোনো কোনো বিষয়ে অন্যদের চেয়ে বেশি মেধাবী হতে দেখা যায়। তবে সবার ক্ষেত্রেই এমনটি হয়তো নাও হতে পারে।

সূত্র : বিবিসি

Share Button
Previous শেখ হাসিনা এগিয়ে, নোবেল পেয়েও পিছিয়ে সু চি : কাদের
Next বাংলাদেশের অসহায় আত্মসমর্পণ

You might also like

০ Comments

No Comments Yet!

You can be first to comment this post!

Leave a Reply