সঠিকভাবে শ্যাম্পু করার কিছু নিয়ম-কানুন

সঠিকভাবে শ্যাম্পু করার কিছু নিয়ম-কানুন

২৪ অক্টোবর ২০১৭ (গ্লোবটুডেবিডি): চুল সুন্দর রাখার প্রথম শর্ত হলো পরিষ্কার চুল ও স্কাল্প। তাই নিয়মিত চুল পরিষ্কার করা প্রয়োজন। তবে চুল সঠিকভাবে পরিষ্কার করা একইভাবে সমান গুরুত্বপূর্ণ। আমরা শুধু পরিষ্কার করার দিকেই লক্ষ রাখি। কিন্তু সেই সাথে চুল সঠিকভাবে পরিষ্কার করার পাশাপাশি চুল মজবুত ও ঝলমলে করতে চুলে শ্যাম্পু করার সময় কয়েকটি বিষয় মনে রাখতে হবে।

চুলে তেল ম্যাসাজ
চুল শ্যাম্পু করার আগে চুলে ও ত্বকে তেল ম্যাসাজ করুন। কারণ এই তেল চুল থেকে নিঃসৃত চুলের মধ্যে ভারসাম্য বজায় রাখতে সাহায্য করে। তাই চুলের গোড়া হয় মজবুত ও একই সাথে চুল থাকে ঝলমলে। নারকেল, সরষে বা জলপাইয়ের তেল হালকা গরম করে চুলে ব্যবহার করুন।

চুল সঠিকভাবে ব্রাশ করুন
মাথার ত্বকের রক্ত চলাচল বৃদ্ধি, স্কাল্পের পোরসগুলোর মুখ খুলে দেয়া ও চুলের তেল নিঃসরণে ভারসাম্য বজায় রাখার জন্য চুল আঁচড়ানো জরুরি। শ্যাম্পু করার আগেই চুল আঁচড়ে নিন। চুলে কোনো জট থাকলে ছাড়িয়ে নিন। তাহলে শ্যাম্পু করার সময় চুল থাকবে জটবিহীন। শ্যাম্পু করা সহজ হবে।

চুল ধোয়া
চুল শ্যাম্পু করার সময় সঠিকভাবে চুল ধোয়াটা খুব জরুরি। কারণ শ্যাম্পু পুরোপুরি পরিষ্কার না হলে সেটি চুলের জন্য খুবই ক্ষতিকর। চুল ধোয়ার জন্য হালকা গরম পানি ব্যবহার করুন। হালকা গরম পানি চুলের গোড়ার মুখ খুলতে সাহায্য করে। এতে এক দিকে যেমন চুলের তেল চুলের গোড়ায় ঢোকে, অন্য দিকে তেমনি দূষিত পদার্থ দূর হতে সাহায্য করে।

চুলের গোড়া পরিষ্কার করুন
প্রথমে চুলটা দুই ভাগ করে সামনের দিকে এনে নিন। এবার চুল ভিজিয়ে নিন। হাতের তালুতে পরিমাণমতো শ্যাম্পু নিয়ে চুলে ম্যাসাজ করুন। চুলের গোড়ায় হালকাভাবে ম্যাসাজ করুন। এভাবে পুরো চুলে শ্যাম্পু ম্যাসাজ করুন। পরে পুরো চুলে দুই হাতের সাহায্য শ্যাম্পু মেখে নিন। তবে এলোমেলোভাবে ম্যাসাজ করবেন না। বরং আস্তে আস্তে ওপর থেকে নিচের দিকে শ্যাম্পু করুন। এবার ধুয়ে নিন।

কন্ডিশনার
চুল শ্যাম্পু করার পর কন্ডিশনিং করা খুব জরুরি। তাই চুল ধোয়ার পর অবশ্যই চুলে কন্ডিশনার ব্যবহার করুন। কন্ডিশনার ব্যবহার করার আগে চুলের অতিরিক্ত পানি ঝরিয়ে নিন।

ধৈর্যের সাথে কন্ডিশনিং
কন্ডিশনার ব্যবহার করার সময় ধৈর্য নিয়ে সঠিকভাবে চুলে কন্ডিশনার ব্যবহার করুন। কন্ডিশনার শুধু চুলের ওপর লাগাবেন। গোড়ায় যেন না লাগে সে দিকে লক্ষ রাখুন। দু-চার মিনিট অপেক্ষা করে ভালোভাবে ধুয়ে নিন। চুলে কন্ডিশনার যেন না থাকে সে দিকে লক্ষ রাখুন। কন্ডিশনার ধুয়ে ফেলার জন্য ঠাণ্ডা পানি ব্যবহার করুন।

চুল ধোয়ার পর দ্রুত শুকিয়ে নিন। তবে চুল শুকানোর জন্য তোয়ালে দিয়ে চুল বেশি ঘষবেন না। এতে চুলের গোড়া দুর্বল হয়ে যায়। কিছুক্ষণ চুলটা তোয়ালে দিয়ে পেঁচিয়ে রাখুন। এবার খুলে ছড়িয়ে দিন। প্রয়োজনে হেয়ার ড্রায়ার ব্যবহার করুন।

Share Button
Previous জলোচ্ছ্বাসে ভেসে যাওয়া তিন রাখাল ভোলায় উদ্ধার
Next আন্তর্জাতিক বাজারে স্বর্ণের দাম নিন্মমুখী

You might also like

০ Comments

No Comments Yet!

You can be first to comment this post!

Leave a Reply