লাইন ছাড়া চলছে ট্রেন, এরই নাম স্মার্টট্রেন

লাইন ছাড়া চলছে ট্রেন, এরই নাম স্মার্টট্রেন

১ নভেম্বর ২০১৭ (গ্লোবটুডেবিডি): চীনের প্রযুক্তি বিস্ময়ের তালিকায় এবার যোগ হলো আরেকটি নাম- স্মার্টট্রেন। লাইন ছাড়াই চলছে এটি। বলা হচ্ছে, এটিই বিশ্বের প্রথম স্মার্টট্রেন।

ঘণ্টায় ৩০০ কিলোমিটারের বেশি গতিতে বুলেট ট্রেন ছুটিয়ে এর আগেই ট্রেনশিল্পে চমৎকারিত্ব দেখিয়েছে প্রাচ্যের সর্ববৃহৎ দেশ চীন। যোগাযোগ ও অর্থনৈতিক উন্নয়নে আধুনিক প্রযুক্তির ব্যবহারকেই হাতিয়ার করেছে তারা।

স্মার্টট্রেনের কাজ শেষ হয় জুন মাসে। কিন্তু গত সপ্তাহে হুনান প্রদেশের জুজৌ শহরের ব্যস্ততম সড়কে প্রথম পরীক্ষামূলক যাত্রা করানো হয় সেটির। লাইন বা রেলট্রাক ছাড়া সফলভাবে গন্তব্যে পৌঁছাতে পেরেছে ট্রেনটি। এটি মূলত শহুরে সড়কে চলাচলের জন্য তৈরি করা হয়েছে।

স্মার্টট্রেন চলাচলের এই ব্যবস্থাকে বলা হচ্ছে অটোনোমাস রেল র‌্যাপিড ট্রানজিট। ট্রেনটিতে তিনটি কামরা রয়েছে। একসঙ্গে ৩০০ যাত্রী বহন করতে পারে। সর্বোচ্চ গতি ঘণ্টায় ৭০ কিলোমিটার।

চীনের পিপলস ডেইলির তথ্যানুসারে, এটি ব্যাটারি-চালিত একটি ট্রেন। মাত্র ১০ মিনিটের চার্জে ২৫ কিলোমিটার পথ অতিক্রম করতে পারে। এ ছাড়া এটি এমনভাবে বানানো হয়েছে, যাতে শহরের ট্রাফিক ব্যবহার করে চলাচল করতে পারে।

চ্যানেল নিউজ এশিয়ার খবরে বলা হয়েছে, আধুনিক ট্রাম ও বাসের সমন্বিত ধারণা কাজে লাগিয়ে সংকরজাতের এই ট্রেন তৈরি করা হয়েছে। এটি শহরের রাস্তায় ভার্চুয়াল ট্রাক বা লাইনের ওপর দিয়ে চলে, যা সাদা দাগ এঁকে নির্দেশ করে দেওয়া হয়েছে।

স্মার্টট্রেনের প্রধান প্রকৌশলী ডেইলি মেইলকে বলেছেন, শহর-নগরের রাস্তায় লাইনের ওপর দিয়ে চলাচলের উপযোগী একটি সম্পূর্ণ ট্রেন বা ট্রাম তৈরির চেয়ে অনেক কম ব্যয়ে স্মার্টট্রেন বানানো যায়।

বিদ্যুৎশক্তিচালিত চীনের উদ্ভাবিত প্রথম স্মার্টট্রেনটি এখন নিয়মিত যাত্রী পরিবহন করছে। তবে মাত্র ৩ দশমিক ১ কিলোমিটার রাস্তায় চারটি স্টেশনের যাত্রী আনা-নেওয়া করছে এটি। আগামী বছরের শুরু থেকে পুরোদমে যাত্রী পরিবহন করবে স্মার্টট্রেন এবং এর চলাচল ও নিয়ন্ত্রণ স্বয়ংক্রিয় হতে পারে।

Share Button
Previous ভবঘুরে ছবিতে শিমুল খান
Next আয়কর মেলা শুরু॥ ৩ হাজার কোটি টাকা আয়ের প্রত্যাশা

You might also like

০ Comments

No Comments Yet!

You can be first to comment this post!

Leave a Reply