শুধুই কাঠের টুকরো নয়

শুধুই কাঠের টুকরো নয়

২৫ নভেম্বর ২০১৭ (গ্লোবটুডেবিডি): কাঠের একটি সুদৃশ্য টুকরো যেটা দেখলে প্রথম দর্শনেই মনে হতে পারে, পেপার ওয়েট। বিভিন্ন কোণে কাঁটা এই কাঠের টুকরোটি মূলত একটি গ্যাজেট। এক কথায় বলতে গেলে অনেক কাজের কাজি।

এই কাঠের টুকরোটি হচ্ছে আসলে মোবাইল স্ট্যান্ড। আরো পরিষ্কার করে বললে এটি আপনার ফোনের চার্জারও। কেননা এটাতে মোবাইল রাখা হলে তা চার্জ হতে থাকে। এটা তারহীন চার্জার হিসেবেও কাজ করে। আর এতে ন্যানো টেকনোলজি, যার নাম ন্যানো- সাকসন টেকনোলজি ব্যবহার করা হয়েছে। যা আপনার মোবাইল ফোন বা গ্যাজেটকে আটকে রাখতে সাহায্য করে।

আমরা কাঁচের টেবিলের নিচে রাবারের মতো কাপ আকৃতির কালো রঙের যে বস্তু দেখি ন্যানো সাকসন মূলত সেটাই। ফলে ‘হালো’ নামের এই কাঠের টুকরোর যে কোণেই আপনি আপনার মোবাইল বা ট্যাব রাখুন না কেন, ঠিকভাবে আটকে থাকে। আর এতে কিউআই প্রযুক্তির মাধ্যমে দেয়া হয়েছে তারহীন চার্জ সুবিধা। ফলে এটা যেমন মোবাইলকে আপনার চোখের সামনে উপস্থাপন করে সুন্দর ভাবে, একই সঙ্গে চার্জও করতে থাকে। তাছাড়া প্লাস্টিক বা অন্য কোনো বস্তু দ্বারা তৈরি নয় বলে এটা পরিবেশবান্ধব।

যদিও এটা কাঠের রঙকেই প্রাধান্য দিচ্ছে, তবুও এটা অন্যান্য রঙেও পাওয়া যাবে। আর সাম্প্রতিক সময়ের সকল ফোনই এতে সাপোর্ট করে। তা সেটা আইফোন হোক কিংবা স্যামসাং। হালো’র ভাষ্য মতে, তারা পরিবেশ সুরক্ষায় যেহেতু কাঠ ব্যবহার করছে, তেমনি প্রতিটি হালো’র উৎপাদনের জন্য তারা একটি করে গাছও লাগাচ্ছে। তাই হালো কিনলে যে পরিবেশ বিপর্যয় হবে তা নয়, হালো পরিবেশবান্ধব হিসেবেই নিজেকে উপস্থাপন করতে চায়।

Share Button
Previous শিশুকে নিউমোনিয়া থেকে বাঁচাতে কিছু পদক্ষেপ
Next চুয়াডাঙ্গায় দুই ট্রেনের সংঘর্ষে চালকসহ আহত ৪: যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন

You might also like

০ Comments

No Comments Yet!

You can be first to comment this post!

Leave a Reply