হোয়াটসঅ্যাপে গ্রুপ ভিডিও কলিং সুবিধা!

হোয়াটসঅ্যাপে গ্রুপ ভিডিও কলিং সুবিধা!

৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ (গ্লোবটুডেবিডি): বিশ্বের বিভিন্ন দেশে এবং বিভিন্ন প্ল্যাটফর্মে প্রায়ই নতুন নতুন ফিচার নিয়ে পরীক্ষা নিরীক্ষা চালানোর ক্ষেত্রে হোয়াটসঅ্যাপের বেশ সুখ্যাতি রয়েছে।

ফেসবুক-মালিকানাধীন এই তাৎক্ষণিক বার্তা আদান প্রদানকারী অ্যাপটি গত বছরই চালু করেছিল ভয়েস কলিং সুবিধা। তারপর চালু করে ওয়ান-টু-ওয়ান ভিডিও কলিং সুবিধা। আর এবার হোয়াটসঅ্যাপের সাফল্যের খাতায় যুক্ত হচ্ছে আরো একটি নতুন নাম- গ্রুপ ভিডিও কলিং। এর মাধ্যমে এখন থেকে হোয়াটসঅ্যাপে একই সঙ্গে একাধিক মানুষের সঙ্গে ভিডিও কলে কথা বলা যাবে।

নতুন এই ফিচারটির কথা প্রথম প্রকাশিত হয় ওয়াব্যাটা ইনফো নামের একটি ওয়েবসাইটে। এই ওয়েবসাইটটি মূলত হোয়াটসঅ্যাপের সব আসন্ন ফিচারগুলোর ওপর নজর রাখে। এতে উল্লেখ করা হয়, হোয়াটসঅ্যাপের সর্বশেষ সংস্করণ ২.১৭.৪৪৩ এ গ্রুপ ভিডিও কলিং যুক্ত হওয়ার একটি ইঙ্গিত পাওয়া গেছে। কিন্তু নতুন এই ফিচারটি সম্পর্কে এর বেশি বিশেষ কিছু জানা যায়নি। তবে এই ওয়েবসাইটটি অ্যান্ড্রয়েডে অ্যাপটির নতুন সংস্করণ সম্পর্কে গভীরতরভাবে নজর রাখছে। যদিও অফিসিয়াল কোনো ঘোষণা এখনও আসেনি তবে অ্যান্ড্রয়েডে বেটা ব্যবহারকারীদের মধ্যে এই ফিচারটি ইতিমধ্যেই দৃশ্যমান।

ওয়েবসাইটটিতে উল্লেখ করা হয়েছে, অ্যাপটির নতুন সংস্করণে ব্যবহারকারীদের গ্রুপ কলিং সুবিধা দেয়ার জন্য একটি নতুন অপশন অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। ওয়েবসাইটটির টুইটার অ্যাকাউন্টে পোস্ট করা স্ক্রিনশটটিতে, ওপরের ডান দিকের কোণায় ভিডিও কলে একাধিক সদস্য যোগ করার অপশনটি সহজেই দেখা যাচ্ছে। যুক্ত হওয়া ফিচারটিতে বর্তমানে গ্রুপ ভিডিও কলে কল দাতা এবং গ্রহীতা ছাড়াও তিনজন সদস্যে যোগ করার অপশন রয়েছে। অর্থাৎ নতুন এই ফিচারের মাধ্যমে সর্বাধিক পাঁচ জন একই সঙ্গে ভিডিও কলে কথা বলা যাবে।

সম্প্রতি, ফেসবুকের সিইও মার্ক জাকারবার্গ কোম্পানিটির ২০১৭ সালের চতুর্থ প্রান্তিকের আয়ের হিসেব ঘোষণা করার সময় বলেছিলেন যে, হোয়াটসঅ্যাপ ইতিমধ্যেই ১.৫ বিলিয়ন ব্যবহারকারীর মাইলস্টোনে পৌঁছেছে এবং প্রতিদিন হোয়াটসঅ্যাপে ৬০ বিলিয়ন বার্তা আদান প্রদান হয়।

Share Button
Previous খালেদা জিয়ার ৫ বছরের কারাদণ্ড
Next কারাগারে খালেদা জিয়া, রোববারের আগে আপিল নয়

You might also like

০ Comments

No Comments Yet!

You can be first to comment this post!

Leave a Reply