তাজা ও সতেজতায় ফ্রিজ
March 7, 2018 679 Views

তাজা ও সতেজতায় ফ্রিজ

৭ মার্চ ২০১৮ (গ্লোবটুডেবিডি): ১. গরম তাওয়াতে কিংবা মাইক্রোওয়েভ ওভেনে ফয়েলের ওপর দারুচিনি রেখে গরম করুন। রান্নাঘরের কোনো আঁশটে গন্ধ বা বাড়ির কোনো বাসি আবহাওয়া নিমিশে বদলে যাবে।

মাছ ডিপ ফ্রিজে বেশিদিনের জন্য রাখতে চাইলে প্রথমে সেগুলো পরিষ্কার করতে হবে। তারপর তাতে লবণ-হলুদ মাখিয়ে রেখে দিন। সামান্য ভিনেগার দিয়ে ফ্রিজে রাখলে মাছের বাসি গন্ধ হবে না, ডিপ ফ্রিজেও আঁশটে লাগবে না।

২. অনেক সময় চিংড়ি মাছে এমন এক ধরনের গন্ধ হয় যা ধক করে নাকে লাগে। রান্না করার আগে বিশ মিনিটের মতো এতে লেবুর রস ও সামান্য লবণ মাখিয়ে রাখুন। এরপর পরিষ্কার করে ধুয়ে রান্না করুন। মাছ বা অন্যান্য সামুদ্রিক খাবার রান্না করার আগে এইভাবে লবণ-লেবু দিয়ে মাখিয়ে নিন। এক্ষেত্রে বিকল্প হিসেবে সরষের তেলেও দারুণ কাজ দেয়।

৩. আচারের বোতলে আচার শেষ হয়ে গেলে পরিষ্কার করার পরও অনেকদিন আচারের গন্ধ থেকে যায়। এরফলে অন্যান্য জিনিস রাখলে তাতেও সেই গন্ধের ভাবটা দেখা যায়। একটা দিয়াশলাই জ্বেলে বোতলে ফেলে দিন। শক্ত করে বোতলের ঢাকনা বন্ধ করুন। কিছুক্ষণ পর সাবান-পানি দিয়ে ধুয়ে রাখুন। দেখবেন আচারের গন্ধ গায়েব!

৪. ফ্লাক্সে প্রায়ই খুব বাজে গন্ধ হয়। সেক্ষেত্রে ফ্লাক্স ধুয়েমুছে এক চা-চামচ চিনি রাখুন। পরের বার ব্যবহারের আগে একবার ধুয়ে নেবেন।

৫. বাড়িতে রং হলে প্রথম কয়েকদিন ঘরে থাকা কঠিন হয়ে পড়ে। নতুন রং হওয়া গন্ধ ঘরে পেঁয়াজ কেটে রাখুন। রঙের ঝাঁঝালো গন্ধ উবে যাবে।

৬. ফ্রিজ অনেকদিন পরিষ্কার না হলে বা খাবারের ঢাকনা খোলা থাকলে অনেক সময় একটা দুর্গন্ধ বের হয়। কাটা লেবু বা এক বাটি ভিনেগার প্রতি র‌্যাকে বা কোনায় রেখে দিলে সেই গন্ধ আর থাকবে না।

৭. অনেক সময়ই জুতার দুর্গন্ধ লজ্জার কারণ হয়ে দাঁড়ায়। ছোট ফ্ল্যাট হলে টেকা দায় হয়ে ওঠে। সেক্ষেত্রে জুতার মধ্যে পাইন পাতা ফেলে রাখতে পারেন। পাইন পাতা না পেলে লেমন গ্রাস অয়েল বা ওডিকোলন-ভেজা তুলাও হতে পারে সমাধান।

৮. সাবানের মোড়ক খুলেই ফেলে দেবেন না। এগুলোও জুতার বাক্সে কিংবা জুতা যে আলমিরাতে রাখেন তাতে রেখে দেবেন। বাক্স বা কাবার্ডের দরজা খুললেই বোঁটকা গন্ধের বদলে পাবেন তাজা হাওয়া।

Please follow and like us:
Previous ফেসবুক হ্যাক হলে ফোনে পাবেন পুলিশের সহায়তা
Next মায়ের বুক খালি করে ক্ষমতায় টিকে থাকা যায় না: এরশাদ

You might also like

০ Comments

No Comments Yet!

You can be first to comment this post!

Leave a Reply