খালেদা জিয়ার জামিন স্থগিত অাপিল বিভাগে

খালেদা জিয়ার জামিন স্থগিত অাপিল বিভাগে

ঢাকা ১৯ মার্চ ২০১৮ (গ্লোবটুডেবিডি): জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে হাইকোর্টে দেওয়া জামিন স্থগিত করেছেন সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ। সোমবার প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বে চার বিচারপতির আপিল বিভাগের নিয়মিত বেঞ্চ রাষ্ট্রপক্ষ ও দুর্নীতি কমিশনকে (দুদক) লিভ টু আপিলে এ আদেশ দেন। আপিল বেঞ্চের অন্য সদস্যরা হলেন বিচারপতি মোহাম্মদ ইমান আলী, বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকী ও বিচারপতি মির্জা হোসেইন হায়দার।

আদালত আগামী ২২ মে এ মামলার পরবর্তী শুনানির তারিখ নির্ধারণ করেছেন।

এর আগে রোববার দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) ও রাষ্ট্রপক্ষের দায়ের করা লিভ টু আপিলের (আপিলের অনুমতি চেয়ে আবেদন) শুনানি শেষে খালেদা জিয়ার জামিন বিষয়ে সোমবার আদেশের দিন ধার্য করেন আপিল বিভাগ।

রোববার আদালতে খালেদা জিয়ার পক্ষে শুনানি করেন সিনিয়র আইনজীবী খন্দকার মাহবুব হোসেন ও সাবেক অ্যাটর্নি জেনারেল এ জে মোহাম্মদ আলী। রাষ্ট্রপক্ষে শুনানি করেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম এবং দুদকের পক্ষে আইনজীবী খুরশীদ আলম খান শুনানি করেন।
লিভ টু আপিলের শুনানি শেষে রোববার অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম নিজ কার্যালয়ে এক ব্রিফিংয়ে বলেন, আমরা আদালতে বারবার বলেছি আপিলটার শুনানি হোক। চার মাস সময় বেঁধে দিয়েছেন হাইকোর্ট। আমি বলেছি, প্রয়োজনে আরো সংক্ষিপ্ত সময় সময় বেঁধে দেয়া হোক আপিলের পেপারবুক তৈরি করার জন্য। আড়াই মাস জেলে আছেন বাকি দুই-তিন মাসের মধ্যে আপিল শুনানি হয়ে যাবে। তারপরও আপিল শুনানি করে উনি যদি মুক্ত হতে পারেন ভালো কথা।

বৃহস্পতিবার খালেদা জিয়াকে হাইকোর্টের দেয়া জামিন আদেশ চ্যালেঞ্জ করে দুদক ও রাষ্টপক্ষে পৃথক দুটি লিভ টু আপিল আবেদন দায়ের করা হয়। উভয় আবেদনেই খালেদা জিয়ার জামিন স্থগিত করে আপিল বিভাগের দেয়া আদেশের মেয়াদ বৃদ্ধির আরর্জি জানানো হয়। আজ রোববার ওই আবেদনের উপর আপিল বিভাগের নিয়মিত বেঞ্চে শুনানি শেষে এ আদেশ দেন।

গত বুধবার জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় খালেদা জিয়ার জামিন করে দুদক ও রাষ্ট্রপক্ষকে লিভ টু আপিল আবেদন দায়ের করতে বলেছিলেন আপিল বিভাগ। প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বে চার বিচারপতির আপিল বিভাগের নিয়মিত বেঞ্চ খালেদা জিয়াকে হাইকোর্টে দেওয়া জামিন আদেশ রোববার পর্যন্ত স্থগিত করে লিভ টু আপিল করতে বলেন। একই সঙ্গে রোববার দুদক ও রাষ্ট্রপক্ষকে লিভ টু আপিল শুনানির দিন ধার্য করা হয়।

অন্যদিকে খালেদা জিয়াকে হাইকোর্টের দেওয়া চার মাসের জামিনের ওপর আপিল বিভাগের স্থগিতাদেশ প্রত্যাহার চেয়ে অপর একটি আবেদন করা হয়।

 

Please follow and like us:
Previous বেসরকারি মেডিকেলের শিক্ষার মানে নজর দিতে হবে: প্রধানমন্ত্রী
Next পারল না বাংলাদেশ, চ্যাম্পিয়ন ভারত

You might also like

০ Comments

No Comments Yet!

You can be first to comment this post!

Leave a Reply