পৃথক সাইকেল লেনের দাবিতে রাজধানীতে শোভাযাত্রা

পৃথক সাইকেল লেনের দাবিতে রাজধানীতে শোভাযাত্রা

ঢাকা ৭ এপ্রিল ২০১৮ (গ্লোবটুডেবিডি):  বাইসাইকেলের জন্য পৃথক লেন দাবিতে রাজধানীতে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা করেছে বাংলাদেশ সাইকেল লেন বাস্তবায়ন পরিষদ। ‘ব্যক্তিগত গাড়ি নিয়ন্ত্রণ ও সাইক্লিং উৎসাহিত করুন, জ্বালানি সাশ্রয়, যানজট রোধে সাইকেল লেন হোক বাস্তবায়ন’ এমন  স্লোগানে এই শোভাযাত্রা হয়।

সপ্তম সাইকেল লেন দিবস-২০১৮ উপলক্ষে শুক্রবার মানিক মিয়া এভিনিউয়ে বাংলাদেশ সাইকেল লেন বাস্তবায়ন পরিষদের এ শোভাযাত্রায় অংশ নেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ভিসি অধ্যাপক ড. আ আ ম স আরিফিন সিদ্দিক, বিজিএমইএ’র সাবেক সভাপতি মো. আতিকুল ইসলাম, চিত্রনায়ক ফারুক, জাতীয় দলের সাবেক তারকা ফুটবলার কায়সার হামিদ, কবি ও সাংবাদিক আতিক হেলাল, ফাতেমা সুলতানা সুমি, সাইকেল লেন বাস্তবায়ন পরিষদের সভাপতি আমিনুল ইসলামসহ প্রায় শতাধিক সাইক্লিস্ট। বর্ণাঢ্য এ সাইকেল শোভাযাত্রার সহযোগিতায় ছিল দেশের অন্যতম শীর্ষস্থানীয় সাইকেল ব্র্যান্ড দুরন্ত বাইসাইকেল।
র‌্যালি শুরুর আগে সংক্ষিপ্ত সমাবেশে বক্তারা বলেন, বর্তমানে যানজট একটি জাতীয় সমস্যা হয়ে দাঁড়িয়েছে। যানজট হ্রাসে বিভিন্ন সেক্টরের বিশেষজ্ঞরা বিভিন্ন সময় অনেক মতামত ব্যক্ত করেছেন। মধ্যবিত্তদের বাহন বাইসাইকেল বহির্বিশ্বে একটি পরীক্ষিত বাহন। আর্থিক, সামাজিক, স্বাস্থ্য ও পরিবেশ উন্নয়নের লক্ষ্যে সাইক্লিংকে সারা বিশ্বে তরুণদের মাঝে উৎসাহিত করা হয়। কিন্তু দুঃখের বিষয় আমাদের দেশে এ বিষয়ে তেমন কোনো সুযোগ-সুবিধা না থাকায় সাইক্লিস্টরা নিরুৎসাহিত হচ্ছেন। সাইক্লিস্টদের অধিকার আদায়ের জন্য বাংলাদেশ সাইকেল লেন বাস্তবায়ন পরিষদের উদ্যোগে প্রতিবছর দেশব্যাপী যথাযোগ্য মর্যাদায় এপ্রিল মাসের প্রথম শুক্রবার এ দিবসে তাদের অধিকার তুলে ধরা হয়।
নগরে সাইক্লিস্টদের জন্য পর্যাপ্ত সুযোগ-সুবিধা না থাকা যানজটের অন্যতম কারণ এমন মন্তব্য করে বক্তারা বলেন, রাজধানীতে দুঃসহ যানজটের কারণে মানুষ ক্রমেই ক্ষুব্ধ হয়ে উঠছে। দীর্ঘ সময় সড়কে আটকে থাকায় মানুষের স্বাস্থ্যে ক্ষতিকারক প্রভাব পড়ছে। সেই সঙ্গে মানসিক দিক থেকেও চাপ পড়ছে। যানজটে প্রতিদিন নষ্ট হচ্ছে ৫০ লাখ কর্মঘণ্টা। বছরে যার শুধু আর্থিক ক্ষতির পরিমাণই ২২ হাজার কোটি টাকা। নগরীর যানজট পরিস্থিতির এ ভয়াবহ চিত্র দূর করতে ব্যক্তিগত গাড়ি নিয়ন্ত্রণ ও সাইক্লিং উৎসাহিত করা অপরিহার্য হয়ে পড়েছে। তারা আরও বলেন, যানজটের ক্ষতিকর প্রভাবের কারণে মানুষ প্রয়োজনীয় বিশ্রামের সময় পাচ্ছে না। স্বজন এবং অন্যের সঙ্গে ন্যায্য আচরণের বদলে দুর্ব্যবহার করছে ভুক্তভোগীরা। দুর্ঘটনায় আহত বা শঙ্কটাপন্ন রোগীদেরও সময় মতো হাসপাতালে নেওয়া যাচ্ছে না, পথেই মৃত্যু হচ্ছে। রাজধানীতে গড়ে প্রতি ঘণ্টায় গাড়ির গতিবেগ পাঁচ কিলোমিটার। হেঁটে ও সাইক্লিং চললে এই গতিতে কোথাও এর আগেই পৌঁছানো যায়। তাই জ্বালানি সাশ্রয় ও যানজট নিরসনে সরকারি-বেসকারি সংগঠনের সমন্বিত পদক্ষেপে ফুটপাতগুলো দখলমুক্ত করে পৃথক সাইকেল লেন বাস্তবায়নের দাবি জানান বক্তারা।শেষে একটি সাইকেল র‌্যালি অনুষ্ঠিত হয়।

Share Button
Previous পেজ পরিচালকের পরিচয় যাচাই করবে ফেসবুক
Next ঢাকায় পাওয়া যাচ্ছে উলিপুরের ঐতিহ্যবাহী মিষ্টান্ন ক্ষীরমোহন

You might also like

০ Comments

No Comments Yet!

You can be first to comment this post!

Leave a Reply