ইন্দোনেশিয়ায় চার্চের পর এবার পুলিশ সদর দফতরে হামলা

ইন্দোনেশিয়ায় চার্চের পর এবার পুলিশ সদর দফতরে হামলা

১৪ মে ২০১৮ (গ্লোবটুডেবিডি): ইন্দোনেশিয়ার দ্বিতীয় বৃহত্তম নগরী সুরাবায়ায় সোমবার একটি পুলিশ সদরদফতরে মোটরসাইকেলে চড়ে দুই আত্মঘাতী হামলাকারী বোমা হামলা চালিয়েছে। এতে তারা নিহত হয়েছে।

দেশটির কর্তৃপক্ষ একথা জানিয়েছে। খবর এএফপি’র।

তিনটি গির্জায় ভয়াবহ বোমা হামলা চালানোর মাত্র একদিন পরেই এ হামলা চালানো হল। গির্জায় হামলার ঘটনায় অন্তত ১৪ জন নিহত ও বেশ কয়েকজন আহত হয়েছে।

ইস্ট জাভা পুলিশের মুখপাত্র ফ্র্যান্স বারুং মাঙ্গেরা বলেন, এক নারী ও এক পুরুষ একটি নিরাপত্তা চৌকিতে তাদের মোটরসাইকেল থামিয়ে শরীরে বেঁধে রাখা বোমার বিস্ফোরণ ঘটায়।

তিনি বলেন, ‘মোটরসাইকেলে দুই ব্যক্তি ছিল। পিছনে এক নারী ছিল।’

এই ঘটনায় চেকপোস্টে কর্তব্যরত পুলিশ সদস্যদের কেউ হতাহত হয়েছে কিনা সে ব্যাপারে কর্তৃপক্ষের পক্ষ থেকে তাৎক্ষণিকভাবে কিছু বলা হয়নি।

তিনটি গির্জায় আত্মঘাতী হামলা চালানোর একদিন পরেই পূর্বাঞ্চলীয় জাভায় সোমবার এই হামলা চালানো হলো। একই পরিবারের সব সদস্য মিলে সমন্বিতভাবে গির্জাগুলোতে হামলা চালায়। দুই বাচ্চাকে নিয়ে মা একটি গির্জায় হামলা চালায়। আর বাবা এবং তিন ছেলে আরো দু’টি হামলায় অংশ নেয়।

বাবা বিস্ফোরকভর্তি একটি গাড়ি নিয়ে যান পেন্টেকোস্টাল গির্জার কাছে। তারপর হামলা চালানো হয়। এতে পরিবারের তিন সদস্যের মৃত্যু হয়। পরিবারের দুই শিশুকে গুরুতর আহত অবস্থায় সিটি খোদিজাহ হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করা হয়েছে।

তিনটি গির্জা এবং পুলিশের সদর দফতরে হামলার দায় স্বীকার করেছে উগ্রবাদী গোষ্ঠী ইসলামিক স্টেট (আইএস)। পুলিশের ধারণা গির্জাগুলোতে হামলা চালানো পরিবারটি সম্প্রতি সিরিয়া থেকে ফিরেছে।

Share Button
Previous সোনমকে তসলিমার খোঁচা!
Next চা-কফি পানের নানা দিক

You might also like

০ Comments

No Comments Yet!

You can be first to comment this post!

Leave a Reply