কড়া আন্দোলন ছাড়া খালেদাকে মুক্ত করা সম্ভব নয়: নজরুল ইসলাম

কড়া আন্দোলন ছাড়া খালেদাকে মুক্ত করা সম্ভব নয়: নজরুল ইসলাম

ঢাকা ২৭ মে ২০১৮ (গ্লোবটুডেবিডি): আইনি লড়াইয়ের মাধ্যমে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে মুক্ত করা সম্ভব নয়। কঠোর আন্দোলনের মাধ্যমে খালেদা জিয়াকে মুক্ত করতে হবে। এমনটাই বলেছেন বিএনপি নেতা নজরুল ইসলাম খান।

শনিবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবে এক প্রতিবাদ সভায় বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান এসব কথা বলেন।
কারাবন্দী বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া ও স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি শফিউল বারীর মুক্তির দাবিতে এই সভার আয়োজন করে শফিউল বারী মুক্তি পরিষদ।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে নজরুল ইসলাম খান বলেন, ‘যখন বয়স ছিল, তখন স্বৈরাচারবিরোধী আন্দোলন করেছি, আইয়ুববিরোধী আন্দোলন করেছি। কিন্তু এখন পাবর না। এখন ছাত্রদল-স্বেচ্ছাসেবক দলকে আন্দোলন করতে হবে।’

তিনি আরো বলেন, মিথ্যা অভিযোগে সাজা পেয়ে খালেদা জিয়া কারাগারে যাওয়ার পর তাঁর জামিন নিয়ে টালবাহানা শুরু হলো। তিনি জামিন পেলেন, কিন্তু সরকারপক্ষ চেম্বার জজের কাছে চলে গেল। সময় নেওয়া হলো অনেক। এক শুনানি থেকে আরেক শুনানির দূরত্ব অনেক। অবশেষে জামিন হলো। তবে এর আগেই আরেকটি মামলায় ‘শ্যেন অ্যারেস্ট’ দেখানো হলো। আইনি লড়াইয়ের মাধ্যমে বেগম জিয়াকে মুক্ত করার চেষ্টা হয়েছে এবং হচ্ছে, কিন্তু না। এভাবে তাঁকে মুক্ত করা সম্ভব নয়।

খালেদা জিয়াকে মুক্ত করতে হলে কঠোর আন্দোলনের প্রয়োজন উল্লেখ করে বিএনপির এই নেতা দলের নেতা-কর্মীদের কার্যকর আন্দোলনের জন্য প্রস্তুতি নেওয়ার আহ্বান জানান।

তিনি বলেন, ‘জনতা পারে না এমন কোনো কাজ নেই। আমরা ৯০–এর স্বৈরাচারী আন্দোলন করেছি। আইয়ুব খানের বিরুদ্ধে আন্দোলন করেছি। আমরা তখন পেরেছি কারণ তখন আমাদের আন্দোলনের বয়স ছিল। তবে এখন যদি করতে বলেন তাহলে পারব না। এখন আন্দোলন করতে হবে স্বেচ্ছাসেবক দল ও ছাত্রদলকে।’

বিএনপির এই নেতা বলেন, সবারই ধৈর্যের সীমা থাকে। এই দেশ এখন আন্তর্জাতিকভাবে স্বৈরতান্ত্রিক দেশে পরিণত হয়ে গেছে। ৭৩ বছর বয়সী খালেদা জিয়া আজ কারাগারে যথেষ্ট অসুস্থ। চিকিৎসকেরা বলেছেন, এমন অবস্থায় থাকলে তিনি পঙ্গু হয়ে যেতে পারেন। অন্ধ হয়ে যেতে পারেন। সরকারি চিকিৎসকেরা তাঁর উন্নত চিকিৎসার সুপারিশ করার পরও সরকার সেটা আমলে নেয়নি। এই স্বৈরশাসনের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াতে হবে। আন্দোলনের মাধ্যমে খালেদা জিয়াকে মুক্ত করতে হবে।

শফিউল বারী মুক্তি পরিষদ আহ্বায়ক ফয়েজ উল্লাহ ফয়েজের সভাপতিত্বে প্রতিবাদ সভায় বক্তব্য দেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান, সাংগঠনিক সম্পাদক ফজলুল হক মিলন, স্বেচ্ছাসেবক দলের সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম ফিরোজ প্রমুখ।

Share Button
Previous আফজালের পাত্রী খুঁজছেন সুবর্ণা মুস্তাফা!
Next ছোলা ভেজাতে ভুলে গেলে যা করবেন

You might also like

০ Comments

No Comments Yet!

You can be first to comment this post!

Leave a Reply