শিশুকে কত বছর মায়ের দুধ পান করাবেন

শিশুকে কত বছর মায়ের দুধ পান করাবেন

৩১ মে ২০১৮ (গ্লোবটুডেবিডি): একজন মা যার একটা ৫ বছর বয়সী মেয়ে এবং দুই বছর বয়সী ছেলে রয়েছে, তারা একই সাথে মায়ের দুধ পান করছে। এমা শার্ডলো হাডসন নামের এই মা বলেন, বলে এটা তার সন্তানদের শরীরের জন্য ভাল। কারণ তার খুব কম অসুস্থ হয়।
২৭ বছর বয়সী এই মা আরো বলেন, তিনি বিষয়টা ভালো-ভাবে নিচ্ছেন কারণ বুকের দুধে এন্টিবডি রয়েছে যেটা শিশুর শরীরের জন্য ভালো। যুক্তরাজ্যের চিকিৎসকরা পরামর্শ দেন যতদিন মা এবং শিশু দুজনেই চাইবে ততদিন দুধ পান করানো উচিত।
আর ডাক্তাররা বলছেন, এটা একেবারেই একটা ব্যক্তিগত বিষয়। এটা মা শিশুর সম্পর্ককে গড়ে তোলে আর এতে কোন ক্ষতি নেই। এটা মায়ের জন্য স্তন এবং ওভারির ক্যান্সারের ঝুঁকি কমায়।
যুক্তরাজ্যে ন্যাশনাল হেলথ সার্ভিস নির্দিষ্ট কোন টাইম বেধে দেয় নি ঠিক কোন সময়ে দুধ পান করানো বন্ধ করতে হবে। শিশুর জন্য প্রথম ছয় মাস মায়ের বুকের দুধ পান করানোর জন্য বিশেষ ভাবে বলা হয়। এর পর ছয় বছর দুধের সাথে সাথে অন্যান্য শক্ত খাবার খাওয়ানো যেতে পারে।
বিশেষজ্ঞরা একমত হয়েছেন যে, বুকের দুধ পান করানো মা এবং শিশু উভয়ের স্বাস্থ্যের জন্য ভালো। যে কোন ধরণের ইনফেকশন, ডাইরিয়া, এবং বমি ভাব বন্ধ করার ক্ষেত্রে মায়ের দুধ ভালো রক্ষাকবচের কাজ করে। পরবর্তী জীবনে স্থূলতাসহ অন্যান্য রোগ প্রতিরোধ করতে সহায়তা করে।
ন্যাশনাল হেলথ সার্ভিসের ওয়েবসাইটে বলা আছে, ‘‘যতদিন আপনার ভালো লাগবে ততদিন আপনি আপনার শিশুকে বুকের দুধ খাওয়াতে পারেন। দুই বা তার চেয়ে বেশি বছর ধরে বুকের দুধ খাওয়ার পাশাপাশি এসময় অন্যান্য খাবার দেয়া উচিত।’’
Share Button
Previous রাজধানীতে ডিএমপির অভিযান, ৪১ মাদক ব্যবসায়ী আটক
Next তাজিনের ফ্রেমবন্দি স্মৃতিতে অশ্রুসজল সহকর্মীরা

You might also like

০ Comments

No Comments Yet!

You can be first to comment this post!

Leave a Reply