সৌদি আরব ও কাতারের মধ্যে যুদ্ধের আশঙ্কা বাড়াল রাশিয়া

সৌদি আরব ও কাতারের মধ্যে যুদ্ধের আশঙ্কা বাড়াল রাশিয়া

৩ জুন ২০১৮ (গ্লোবটুডেবিডি): রমজানের পবিত্র মাসেই মনে হয় পারস্য উপসাগরীয় এলাকার দুই মুসলিম রাষ্ট্রের মধ্যে সংঘাত তীব্র আকার নিতে যাচ্ছে। সৌদি আরবের হুমকি উপেক্ষা করেই কাতারকে ক্ষেপণাস্ত্র সরবরাহ করবে পুতিনের দেশ রাশিয়া। কোনওভাবেই এই পরিকল্পনা থেকে সরে আসা হবে না। এমনই জানালেন রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের ডেপুটি চেয়ারম্যান। এই খবর জানাচ্ছে আল জাজিরা। ফলে পারস্য উপসাগর এলাকায় নতুন করে সংকট তৈরি হতে চলেছে।

রিপোর্টে বলা হয়েছে, নিরাপত্তার স্বার্থে কাতার সরকার যে এফ ৪০০ ক্ষেপণাস্ত্র কিনতে চেয়েছে, তা বিক্রির পরিকল্পনা থেকে সরছে না রাশিয়া। এদিকে মিসাইল বিক্রি করা হলেই কাতারে হামলার হুমকি দিয়েছেন সৌদি আরবের বাদশা সালমান।

সৌদি হুমকি উড়িয়েই কাতারে ক্ষেপণাস্ত্র সরবরাহে অটল রাশিয়া। কাতারের ক্ষেপণাস্ত্র কেনার কর্মসূচি আরবের পক্ষে বিপজ্জনক বলে উদ্বিগ্ন সৌদি বাদশা। তিনি চিঠি লিখেছেন ফ্রান্সের প্রেসিডেন্টকে।

চিঠিতে অনুরোধ করা হয়েছে, ফ্রান্স সরকার যেন কাতারকে ক্ষেপণাস্ত্র কেনা থেকে বিরত থাকতে অনুরোধ করেন। চিঠিতে সৌদি বাদশা লিখেছেন, পরিস্থিতি কঠিন হল কাতারে সেনা অভিযান চালানো হবে। ফরাসি সংবাদপত্রে সেই চিঠি প্রকাশ হওয়ার পরই শোরগোল পড়ে যায় আন্তর্জাতিক রাজনীতিতে।

মধ্যপ্রাচ্য বিশেষজ্ঞদের ধারণা, পারস্য উপসাগরীয় অঞ্চলে সৌদি আরব বৃহত্তম ক্ষমতাশালী রাষ্ট্র। তার পূর্ব সীমায় থাকা কাতার একটি ক্ষুদ্র রাষ্ট্র। সেই রাষ্ট্র যদি এফ ৪০০ ক্ষেপণাস্ত্র কেনে তাহলে তা বেশ চিন্তারই কারণ সৌদি আরবের জন্য। এই ক্ষেপণাস্ত্র কিনতে মরিয়া কাতার সরকার। রাশিয়ার সঙ্গে তাদের কথাও চলছে।

এদিকে কাতার সরকার এই বিষয়ে কিছুই জানায়নি। তবে হুমকির পর দেশটির রাজধানী শহর দোহাতে ছড়িয়েছে প্রবল আলোড়ন। নতুন করে উপসাগরীয় যুদ্ধের আশঙ্কায় আরবের পূর্বপ্রান্তে ক্ষুদ্র দেশ কাতারে ছড়াচ্ছে আতঙ্ক।

Share Button
Previous বেনাপোল স্থলবন্দরে অগ্নিকাণ্ড, পুড়ে গেছে পণ্যবোঝাই ১০ ট্রাক
Next নাকের সৌন্দর্যে রাইনোপ্লাস্টি সার্জারি

You might also like

০ Comments

No Comments Yet!

You can be first to comment this post!

Leave a Reply