খালেদা জিয়ার প্রার্থিতা নিয়ে হাইকোর্ট বিভক্ত রায়

খালেদা জিয়ার প্রার্থিতা নিয়ে হাইকোর্ট বিভক্ত রায়

বিএনপি চেয়ারপারসন, সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার প্রার্থিতা নিয়ে হাইকোর্ট বিভক্ত আদেশ দিয়েছেন। চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত এখন প্রধান বিচারপতির কাছে। তিনি এই রিট মামলা শুনানীর জন্য ৩য় কোনো বেঞ্চে পাঠাবেন।

আজ মঙ্গলবার (১২ ডিসেম্বর) বগুড়া-৬ ও ৭ এবং ফেনী-১ এই তিনটি আসনে খালেদা জিয়ার মনোনয়নপত্র বাতিলের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে করা রিটের ওপর শুনানি শেষে হাইকোর্ট এই বিভক্ত আদেশ দিয়েছেন।

বিচারপতি সৈয়দ রেফাত আহমেদ ও বিচারপতি ইকবাল কবিরের হাইকোর্ট বেঞ্চে সোমবার শুনানি হয়। খালেদা জিয়ার পক্ষে শুনানি করেন জ্যেষ্ঠ আইনজীবী এজে মোহাম্মদ আলী। সঙ্গে ছিলেন ব্যারিস্টার কায়সার কামাল ও নওশাদ জমির।

উপস্থিত ছিলেন অ্যাডভোকেট জয়নুল আবেদীন, ফারুক হোসেন ও একেএম এহসানুর রহমান প্রমুখ। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম। সঙ্গে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল বিশ্বজিৎ দেবনাথ।

শুনানিতে আদালতে উপস্থিত ছিলেন ইউরোপীয় ইউনিয়নের ‘ইলেকশন এক্সপার্ট মিশনের’ আইনজ্ঞ ইরিনি-মারিয়া গোনারি। শুরুতে এজলাস কক্ষের শেষ সারিতে দাঁড়িয়েছিলেন তিনি। বিচারপতি সৈয়দ রেফাত আহমেদ তাকে দেখে বসার ব্যবস্থা করে দিতে বলেন। তখন শেষ সারির একটি বেঞ্চে আইনজীবীরা তাদের পাশে বসান গোনারিকে। শুনানি চলাকালে তাকে নোট নিতে দেখা যায়।

শুনানিতে অ্যাটর্নি জেনারেল বলেন, সংবিধানের ৬৬(২)(ঘ) অনুচ্ছেদ অনুযায়ী দণ্ডিত ব্যক্তির ভোটে অংশ নেয়ার সুযোগ নেই। সম্প্রতি বিএনপির ৫ নেতা ভোটে অংশ নেবেন- উল্লেখ করে তাদের দণ্ড ও সাজা স্থগিত চেয়ে হাইকোর্টে আবেদন করলে তা খারিজ হয়ে যায়। ওই আদেশের বিরুদ্ধে আপিল করেন বিএনপির এক নেতা। আপিল বিভাগ হাইকোর্টের আদেশ বহাল রাখেন।

তিনি বলেন, সম্প্রতি হাইকোর্টের একটি একক বেঞ্চ সাবিরা সুলতানা মুন্নী নামের এক প্রার্থীর সাজা ও দণ্ড স্থগিত করে তাকে নির্বাচনে অংশ নেয়ার সুযোগ করে দিয়েছিলেন। আপিল বিভাগ ওই আদেশ স্থগিত করে দিয়েছেন। অর্থাৎ আপিল বিভাগের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী দণ্ডিত ব্যক্তির নির্বাচনে অংশ নেয়ার সুযোগ নেই। এরপরেও দণ্ডিতদের নির্বাচনে অংশ নেয়ার সুযোগ দেয়া হলে তা হবে সংবিধানের ৬৬(২)(ঘ) অনুচ্ছেদের পরিপন্থী।

খালেদা জিয়ার আইনজীবী এজে মোহাম্মদ আলী বলেন, নির্বাচনী আচরণ বিধিমালা ভঙ্গ করায় খালেদা জিয়ার মনোনয়নপত্র বাতিল করেছেন রিটার্নিং কর্মকর্তারা। এর বিরুদ্ধে আপিল করা হয় ইসিতে। ইসি সংখ্যাগরিষ্ঠ মতের ভিত্তিতে খালেদা জিয়ার আপিল খারিজ করে সিদ্ধান্ত দেয়। এতে বলা হয়, উনি দণ্ডিত এ কারণে নির্বাচনে মনোনয়নপত্র গ্রহণের কোনো সুযোগ নেই।

তিনি বলেন, সংবিধানের ৬৬(২)(ঘ) অনুচ্ছেদ যদি ব্যাখ্যা করা হয় তাহলে সেটা হল চূড়ান্ত আপিল নিষ্পত্তির পর। এখানে খালেদা জিয়ার আপিল উচ্চ আদালতে বিচারাধীন। এখনও চূড়ান্ত নিষ্পত্তি হয়নি। ফলে নির্বাচনে অংশ নিতে বাধা কোথায়। এছাড়া দণ্ডের বিরুদ্ধে আপিল বিচারাধীন থাকার পরেও ভোটে অংশ নেয়ার নজির মহীউদ্দীন খান আলমগীরের ক্ষেত্রে রয়েছে। পরে হাইকোর্ট আদেশের জন্য দিন ধার্য করে দেন।

খালেদা জিয়ার আইনজীবী ব্যারিস্টার কায়সার কামাল বলেন, ইসি বেআইনিভাবে খালেদা জিয়ার তিনটি মনোনয়নপত্র বাতিল করে দেয়। আশা করছি তিনি উচ্চ আদালতে ন্যায়বিচার পাবেন এবং জনগণের আশা-আকাক্সক্ষা অনুযায়ী আগামী সংসদ নির্বাচনে অংশ নিতে পারবেন।

তিনি বলেন, সরকারের নির্দেশে নির্বাচন কমিশন খালেদা জিয়ার মনোনয়নপত্র বাতিল করেছে। সরকার স্কিম হাতে নিয়েছে যেন খালেদা জিয়া নির্বাচনে অংশ না নিতে পারেন।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে খালেদা জিয়া ব আসনে মনোনয়নপত্র জমা দেন। রিটার্নিং কর্মকর্তারা তার মনোনয়নপত্র বাতিল করে দেন। পরে ইসিতে আপিলে সংখ্যাগরিষ্ঠের সিদ্ধান্তে তার মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়। নির্বাচন কমিশনার মাহবুব তালুকদার খালেদা জিয়ার পক্ষে তার মত দেন।

Share Button
Previous বিনা পয়সায় ‘পিঙ্ক’-এর তামিল রিমেকে কাজ করছেন বিদ্যা !
Next মুক্তিযোদ্ধাদের বীরত্বগাঁথা নিয়ে কবিতা : কবিতা মঞ্চের পুরস্কার বিতরণী

About author

You might also like

আইন-আদালত ০ Comments

মৃত্যুদণ্ড থেকে রেহাই ছয় ছাত্রলীগ নেতা-কর্মীর: হতাশ বিশ্বজিতের পরিবার

৭ আগস্ট ২০১৭ (গ্লোবটুডেবিডি): হাইকোর্ট পুরনো ঢাকায় আততায়ীদের হাতে নিহত দর্জি দোকানের কর্মী বিশ্বজিৎ দাস হত্যা মামলায় ছাত্রলীগের ছয় জন নেতাকর্মীকে মৃত্যুদণ্ড থেকে রেহাই দিয়েছে। তবে মোট আটজন আসামীর মধ্যে বাদবাকি

আইন-আদালত ০ Comments

ইমামদেরকে ‘সঠিক’ বয়ান দিতে বললেন আদালত

ঢাকা ২এপ্রিল ২০১৭ (গ্লোবটুডেবিডি):  সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে কেউ ধর্ম নিয়ে মানহানিকর মন্তব্য করলে প্রচলিত আইনে তাদের কাঠগড়ায় দাঁড়াতে হবে। তবে আইন নিজের হাতে তুলে নেয়া যাবে না। একই সঙ্গে ইসলাম

আইন-আদালত ০ Comments

সুপ্রিম কোর্টের বেঞ্চ পুনর্গঠন

ঢাকা ৪ অক্টোবর ২০১৭ (গ্লোবটুডেবিডি): সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগের বেঞ্চ পুনর্গঠন করা হয়েছে। পুনর্গঠন আদেশ অনুযায়ী ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতি মোহাম্মদ আবদুল ওয়াহহাব মিঞার নেতৃত্বে আপিল বিভাগের পাঁচ বিচারপতির একটি বেঞ্চে বিচার

০ Comments

No Comments Yet!

You can be first to comment this post!

Leave a Reply